Press "Enter" to skip to content

শিব সেনার আশায় ঢালা হল জল! সরকার গঠন নিয়ে কোন আলোচনাই হয়নি জানিয়ে দিলেন শরদ পাওয়ার

নয়া দিল্লীঃ মহারাষ্ট্রে সরকার গঠন নিয়ে সাসপেন্স এখনো বজায় রয়ে গেলো। রাষ্ট্রবাদী কংগ্রেস পার্টির প্রধান শরদ পাওয়ার সোমবার কংগ্রেসের সভাপতি সনিয়া গান্ধীর সাথে দিল্লীতে গিয়ে সাক্ষাৎ করেন। আজকের এই সাক্ষাৎ নিয়ে অনেকেই ভেবেছিল যে, আজ হয়ত মহারাষ্ট্রে সরকার গঠন নিয়ে সবকিছু ফাইনাল হয়ে যাবে। কিন্তু সনিয়া গান্ধীর সাথে সাক্ষাতের পর শরদ পাওয়ার প্রেস কনফারেন্স করেন, আর সেই প্রেস কনফারেন্সের পর শিবসেনার আশায় আবারও জল ঢেলে দেওয়া হয়।

শিবসেনার রাজ্য সভার সাংসদ সঞ্জয় রাউত লাগাতার সরকার গঠন করা নিয়ে দাবি করে যাচ্ছেন। উনি বলেছেন যে, ‘আমাদের কাছে ১৭০ জন বিধায়কের সমর্থন আছে, আমরা সহজেই সংখ্যাগরিষ্ঠতা হাসিল করে নেবো। শরদ পাওয়ার অভিজ্ঞ রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব, উনিও চান সরকার গঠন হোক। আর ওনার অভিজ্ঞতা অনেক কাজে লাগবে। শরদ পাওয়ারকে নিয়ে আমাদের মনে কোন সংশয় নেই। এনসিপি আর কংগ্রেসের সাথে মিলে আমরা আগামী পাঁচ বছর পর্যন্ত সরকার চালাব।”

আরেকদিকে সনিয়া গান্ধীর সাথে মিটিং এর পর শরদ পাওয়ার বলেন, কংগ্রেস আর এনসিপির নেতারা জল মাপছে, তাছাড়াও আমরা পার্টির নেতাদের সাথে কথাবার্তা চালাচ্ছি। এখনো পর্যন্ত সরকার গঠন নিয়ে কোন চর্চা হয়নি। আমরা অন্য ইস্যু নিয়ে কোন কথা বলিনি। আমরা শুধু পরিস্থিতির দিকে নজর রাখছি। সমস্ত নেতাদের সাথে কথা বলে, তাঁদের সহমতি নিয়েও কোন সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

আপনাদের জানিয়ে রাখি, প্রায় এক সপ্তাহ ধরে মহারাষ্ট্রে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি আছে। এবং প্রায় একমাস আগে মহারাষ্ট্রে ফলাফল ঘোষণা হওয়ার পরেও রাজ্যে এখনো সরকার গঠন করা সম্ভব হয়নি কারোর পক্ষে। গত সপ্তাহে যখন রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করা হয়, তখন কংগ্রেস আর এনসিপির নেতারা সেই সিদ্ধান্তকে গণতন্ত্রের হত্যা বলে আখ্যা দিয়েছিলেন, শিবসেনা থেকে জানানো হয়েছিল যে, রাজ্যপাল কোন একটি নির্দিষ্ট দলের হয়ে কাজ করছেন, এবং আমাদের সরকার গড়তে বাধা দিচ্ছেন। কিন্তু এক সপ্তাহ অতিক্রান্ত হওয়ার পরেও এনসিপি-কংগেস আর শিবসেনা চেষ্টা করেও সরকার গড়তে পারেনি।