Press "Enter" to skip to content

রাজীব কুমারকে CBI এর হাত থেকে বাঁচানোর জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ এর সাথে দেখা করলেন মমতা ব্যানার্জী

তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আজ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ এর সাথে দেখা করেন। বিরোধিরা এই সাক্ষাৎকে নিয়ে কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার এবং মমতা ব্যানার্জী ঘনিষ্ঠ আইপিএস অফিসার রাজীব কুমারকে বাঁচানোর জন্য মমতা ব্যানার্জীর প্রচেষ্টা বলে আখ্যা দিচ্ছেন। রাজীব কুমার সারদা চিটফান্ড মামলার তথ্য প্রমাণ লোপাটের অভিযোগে সিবিআই এর নিশানায় আছেন। আর আপাতত তিনি এখন চোরের মতো লুকিয়ে আছেন বলেই জানা যাচ্ছে।

এই সাক্ষাতের পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ এর সাথে পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি চালু নিয়ে কোন কথা হয়নি। মমতা ব্যানার্জী স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহকে একটি চিঠি লিখে এনআরসি তালিকা থেকে বাদ পড়া মানুষদের আরেকটি সুযোগ দেওয়ার আবেদন করেছেন বলে জানা যাচ্ছে। তিন দিনের সফরে দিল্লীতে গেছেন মমতা ব্যানার্জী। সেখানে গিয়ে তিনি প্রথমে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে দেখা করেছিলেন। উনি এই সাক্ষাৎকে রাজনৈতিক সাক্ষাৎ না বলে, দুই সরকারের মধ্যে উন্নয়ন নিয়ে আলোচনার সাক্ষাৎ বলে আখ্যা দিয়েছিলেন।

মমতা ব্যানার্জী বুধবার বলেছিলেন যে, তিনি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ এর সাথে দেখা করার সময় চেয়েছেন। এছাড়াও উনি কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রী নির্মলা সীতারমন এর সাথেও দেখা করার জন্য সময় চান। কিন্তু কোন কারণে উনি কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করতে পারেননি। প্রধানমন্ত্রীর সাথে এই সাক্ষাতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী রাজ্যের জন্য বিশেষ ফান্ড নিয়ে কথাবার্তা বলেন। মমতা ব্যানার্জী বৈঠকের পর বলেন, প্রধানমন্ত্রী মোদীর সাথে আমার ভালই কথাবার্তা হয়েছে। মমতা ব্যানার্জী বলেন, তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে পশ্চিমবঙ্গে আসার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।

মমতা ব্যানার্জী বলেন, উনি পশ্চিমবঙ্গের নাম পালটে বাংলা করার আবেদন জানিয়েছেন। মমতা ব্যানার্জী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সাথে এই বৈঠকে বেকারত্ব নিয়েও আলোচনা হয়। বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী এটাও বলেন যে, পশিমবঙ্গে এনআরসি লাগু করা যাবেনা। প্রধানমন্ত্রীর সাথে এই নিয়ে কোন আলোচনা হয়নি।

মমতা ব্যানার্জী বলেন, তিনি প্রধানমন্ত্রীর সাথে কোটি কয়লা খনি নিয়েও কথাবার্তা বলেছেন। মমতা বলেন, আমি প্রধানমন্ত্রীর সাথে বিশ্বের অন্যান্য বড়বড় কোল ব্লক নিয়ে আলোচনা করি। এই কোল ব্লকের কার্যক্রমে অনেক মানুষের বেকারত্ব ঘুচবে। মমতা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমি আবেদন করেছি যে, দুর্গাপূজার পর তিনি সময় ঠিক করে কোল ব্লক অনুষ্ঠানে যেন অংশ নেন।