Press "Enter" to skip to content

পশ্চিমবঙ্গে সক্রিয় CBI, এরমধ্যে প্রধানমন্ত্রী মোদীর সাথে দেখা করতে দিল্লী যাচ্ছেন মমতা ব্যানার্জী।

পশ্চিমবঙ্গে CBI সক্রিয় রয়েছে। মমতার ঘনিষ্ট হিসেবে (বিরোধীদের দাবি) পরিচিত রাজীব কুমারকে জিজ্ঞাসাবাদ  চালানোর চেষ্টায় রয়েছে CBI কর্মকর্তারা। জানিয়ে দি এটা সেই রাজীব কুমার যার জন্য পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী ধর্ণায় বসেছিলেন। CBI এর কাজে বাধা প্রদানের জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীকে অনেক সমালোচনার সম্মুখীন হতে হয়েছিল কিন্তু তা সত্ত্বেও উনি পিছু হটেননি। তবে এখন আরো একবার CBI পশ্চিমবঙ্গে সক্রিয় রয়েছে। এখন আর মমতা ব্যানার্জী ধর্ণায় বসেননি।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোাপাধ্যায় মঙ্গলবার দিল্লি যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী মোদীর সাথে দেখা করতে। বুধবার বিকাল সাড়ে চারটের সময়ে মুখোমুখি হবেন মোদী মমতা। এ রাজনৈতিক জল্পনা শুরু হয়ে গেছে। যদিও প্রধানমন্ত্রী মোদীর সাথে প্রশাসনিক আলোচনার জন্য মমতা ব্যানার্জী দিল্লী যেতে চেয়েছেন। কিন্তু অনেকে এটাকে CBI এর সক্রিয়তার প্রসঙ্গের সাথে জুড়ে দিয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়া থেকেও নান রকমের পতিক্রয়া আসতে শুরু হয়েছে। যেহেতু বাক স্বাধীনতা সকলের আছে তাই অনেকেই মমতার দিল্লী গিয়ে মোদীর সাথে বৈঠক করতে চাওয়াকে CBI সক্রিয়তার সাথে জুড়ে দিয়েছেন।

জানিয়ে দি, মোদী সরকারের দ্বিতীয় দফায় অমিত শাহকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। যার পর থেকে দুর্নীতি দমনের উপর ব্যাপকভাবে কাজ চলছে। ইতিমধ্যে  দেশের প্রাক্তণ অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরমকে তিহাড় জেলে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছে। এখন রাহুল গান্ধী, সোনিয়া গান্ধী বেল নিয়ে জেলের বাইরে রয়েছে। তাই এবার কার পালা সেটা বোঝা মুশকিল। এর মধ্যে মমতা ব্যানার্জী দিল্লীতে প্রধানমন্ত্রী মোদীর সাথে দেখা করতে চেয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী রাজ্যের উন্নয়মূলক কর্মসূচী নিয়ে আলোচনা করতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে।

you're currently offline