Press "Enter" to skip to content

সাংবাদিকের কপালে তিলক ও গেরুয়া পোশাক দেখে রেগে উঠলেন কংগ্রেস নেতা মনিশঙ্কর। তারপর যা হলো…

কংগ্রেস নেতারা বার বার এমন এমন কিছু কাজ করে বসেন যার জন্য তারা তীব্র বিরোধী পার্টি ও মুসলিম তোষণকারী পার্টি নামে পরিচয় হয়েছে। সম্প্রতি বিরোধী নেতা বলে পরিচিত মনিশঙ্কর আয়ার এমন কাজ করে বসেছেন যার জন্য আরো একবার বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। মনিশঙ্কর আয়ার এমন আচরণ করেছেন যাতে কিছু হিন্দুর বক্তব্য, “পেট্রোল,ডিজেল ৫০০ টাকা হয়ে গেলেও কংগ্রেসকে ভোট দেব না।” আসলে মনিশঙ্কর আয়ার হিন্দুদের লাগানো ও পরাকে তীব্র বিরোধিতা করেছেন। এক সাংবাদিক মাথায় তিলক লাগিয়ে এবং নিজের পরে মনিশঙ্কর আয়ারের কাছে উপস্থিত হয়েছিলেন যাতে রেগে লাল হয়ে যান কংগ্রেস নেতা। তিনি পুজোর পর তিলক লাগানো বা বস্ত্রে গেরুয়া রং থাকাকে সাম্প্রদায়িক বলে ঘোষণা করেন।

এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় সামনে আসার পর কিছু হিন্দু যুবকদের সোজা সাপটা বার্তা-” পেট্রোল, ডিজেল ৫০০ টাকা লিটার হয়ে গেলেও আমরা কংগ্রেসকে ভোট দেব না।” যে ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে বিখ্যাত সাংবাদিক সুরেশ চৌহানের সাথে মনিশঙ্কর আয়ারকে দেখা যাচ্ছে। সাংবাদিক যেইমাত্র প্রশ্ন শুরু করেন সেই মাত্র মনিশঙ্কর উনার পোশাক ও মাথায় তিলক নিয়ে অপমান করতে শুরু করেন। মনিশঙ্কর বলেন, আপনি খুব সাম্প্রদায়িক মানুষ, আপনি হিন্দুদের ব্যাপারে প্রশ্নঃ করছেন।

অর্থাৎ যারা হিন্দুদের পক্ষ নিয়ে প্রশ্ন করবে তারা সাম্প্রদায়িক এবং হিংসা ছড়ায়। একই সাথে মনিশঙ্কর বলেন, আপনার গেরুয়া পোশাক ও তিলকে আমার সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে। জানিয়ে দি এই মনিশঙ্কর আয়ার হিন্দুদের সন্ত্রাসবাদী, আতঙ্কবাদী বলেছিলেন। এই কংগ্রেস নেতা দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নীচ বলে অপমান করেছিলেন। শুধু তাই নয়, পাকিস্থানে গিয়ে মোদীকে হারানোর জন্য সাহায্য চেয়েছিলেন কংগ্রেসের এই বরিষ্ঠ নেতা। কংগ্রেস যদি NOTA এর কারণে যদি কোনো প্রকারে ক্ষমতায় আসে তাহলে মনিশঙ্করকে বড়ো পদ দেওয়া হবে এটা নিশ্চিত।

কারণ মনিশঙ্কর আয়ার কংগ্রেসের খুবই বরিষ্ঠ নেতা এবং এক বিশেষ সম্প্রদায়ের তোষণের জন্য খুবই দক্ষ। তোষণের জন্য উনি মোাম্মদ আলী জিন্নাহকে উত্তম ব্যাক্তি বলে প্রশংসা করতেও পিছুপা হন না। জানিয়ে দি মুম্বাইতে যে জঙ্গি হামলা হয়েছিল সেখানে এই নেতা হিন্দুদের দায়ী করেছিলেন। যদিও পরে প্রমাণিত হয়েছিল যে এই আক্রমন পাকিস্থানের ১১ জন জঙ্গি দ্বারা করা হয়েছিলো এবং পাকিস্থান এই দায় স্বীকার করেছিল। এখন কিছু হিন্দু প্রতিজ্ঞা করে ফেলছে যদি তেলের দাম ৫০০ পৌঁছে যায়, তবুও কংগ্রেসকে ভোট নয়।