Press "Enter" to skip to content

যোগীর রাজ্যে দারুন পদক্ষেপ, এবার মন্দিরে চড়ানো দুধ যাবে অনাথ আর শহীদ পরিবারে

মথুরার গিরিরাজ মন্দির এক অনবদ্য পদক্ষেপ নিলো। এবার থেকে মন্দিরে দেওয়া দুধ আর বেকার যাবেনা। মন্দির প্রশাসন সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, এবার থেকে দুধের দামের সম পরিমাণ টাকা অনাথ বাচ্চা এবং শহীদদের পরিবারকে দেওয়া হবে। ওই মন্দিরে রোজ আনুমানিক ১০ থেকে ১২ হাজার লিটার দুধ দেওয়া হয়, মাসের একদিন পূর্ণমাসী আর অন্য উৎসবে এই মাত্রা দ্বিগুণ হয়ে যায়। এতদিন পর্যন্ত এই দুধ বেকার যেত।

গিরিরাজ মন্দির
আরও পড়ুনঃ ভারতের ২১টি বিরোধী দল আমদের সাথে, মোদীর যায়গায় তাঁরা ক্ষমতায় আসলে আমাদের জন্য মঙ্গলঃ পাকিস্তান

মথুরার ধর্ম -কর্মের সাথে জড়িত অমিত গোস্বামী বলেন, ‘গিরিরাজ জিকে শ্রদ্ধা করা এই চার মন্দিরে প্রচুর পরিমাণে শ্রদ্ধালু আসেন। আস্থার জন্য তাঁরা এই মন্দিরে দুধ ঢালেন। ওই চার মন্দির হল, জতিপুরা, দানঘাটি, মানসী গঙ্গা আর মুখবিন্দ”

আরও পড়ুনঃ ভারতের চাপের প্রভাব, এবার রাষ্ট্রসঙ্ঘে জৈশ এর বিরুদ্ধে যেতে বাধ্য হচ্ছে পাকিস্তান

জতিপুরা মন্দিরের সেবায়েত ওমপ্রকাশ বলেন, ‘আমাদের মন্দিরে গুজরাটি মানুষেরা বেশি আসেন। প্রতিদিনই এখানে হাজার কেজির ধুল ঢালা হয়।” এখনো পর্যন্ত এই দুধ নর্দমায় ভেসে যেত নাহলে মন্দিরের কুন্ডে জমা হয়ে খারাপ হয়ে যেত। কিন্তু খাদ্য নিরাপত্তা ও ঔষধি প্রশাসন এর আধিকারিক বিকে.রাঠী মন্দির প্রশাসন এবং মথুরার জাগরুক মানুষদের সহায়তায় এক মানবিক উদ্যোগ নেন।

আরও পড়ুনঃ ইজরায়েল-আমেরিকার শ্রেণীতে সামিল হলো ভারত! পরিণত হলো বিশ্বের তৃতীয় দেশে যারা শত্রুকে ঘরে ঢুকে মারে।

ওই উদ্যোগ অনুযায়ী, মন্দিরে একটি অফিস বানানো হয়েছে। উদাহরণ স্বরুপ মন্দিরে ১১ লিটার দুধ ঢালতে আসা ব্যাক্তি নিজের ইচ্ছেয় এক অথবা সোয়া লিটার দুধ মন্দিরে ঢেলে বাকি দুধ ওই অফিসে জমা করে দেবেন। নাহলে সমপরিমাণ দুধের টাকা ওই অফিসে জমা করতে পারেন। আর তাঁর সাথে তিনি এও বলতে পারেন, যে ওনার ওই দুধ অথবা দুধের পয়সা কাকে দিতে চান? অনাথ আশ্রম, বৃদ্ধা আশ্রম না শহীদ জওয়ানদের পরিবারকে।

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.