Press "Enter" to skip to content

সুখবর: সমগ্ৰ দেশজুড়ে মোদী সরকার স্থাপিত করবে ওষুধের ATM মেশিন! প্রেসক্রিপশন ঢুকিয়ে দিলেই বেরিয়ে আসবে ওষুধ।

সামনে লোকসভা নির্বাচন আর তার আগে মোদী সরকার জনগনকে আরো বেশকিছু আকর্ষিত উপহার দিতে চলেছে যার পর জনগণের দৃষ্টি বিরোধীদের থেকে সম্পূর্ণভাবে বিজেপির দিকে ঘুরে যাবে। আসলে ভারতের নির্বাচন বিকাশ, দেশভক্তির উপরে নির্ভরশীল নয়। কারণ ভারতের বেশিভাগ জনগণ রাজনীতি ও দেশের পরিস্থিতি নিয়ে অসচেতন। এর ফলে দালাল মিডিয়াকে সাথে নিয়ে দেশের জনগণের মন খুব সহজেই প্রভাবিত করা যায়। এর সবথেকে বড় উদাহরণ অটল বিহারী সরকার। দেশের মিডিয়া ও কংগ্রেস খুব সহজেই মিথ্যা প্রচারের মাধ্যমে অটলবিহাজিকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে ছিল। এমনকি সম্প্রতি মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান ও ছত্রিশগড়ে বিকাশশীল কার্য হওয়ার পরেও বিজেপি ক্ষমতাচুতৎ হয়।

তবে ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি কোনোভাবেই সেই সুযোগ বিরোধীদের দেবে না। তাই বিকাশকার্যের সাথে সাথে ভোটের আগে জনতাকে নিজেদের দিকে আকর্ষিত করে রাখার উপর জোর দিয়েছে মোদী সরকার। জেনারেল বর্গকে সংরক্ষণ দেওয়ার পর এবার আরো একটা বড় সিধান্ত নিয়েছে সরকার যাতে বেশ লাভবান হবে দেশের সাধারণ জনতা।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, সরকার দেশজুড়ে লাগানোর উপর বিচার করছে। তবে এই থেকে টাকার বের হবে না বরং ঔষুধ বের হবে। মোদী সরকার দেশজুড়ে যে এটিম লাগবে এই এটিম এর পুরো নাম হবে ANY TIME MEDICINE অর্থাৎ যেকোনো সময় ঔষুধ পাওয়ার স্থান। এই মেশিনে ব্র্যান্ডেড এবং জেনেরিক ঔষধ উপলব্ধ হবে। মোদী সরকারের এই সিধান্ত বাস্তবায়ন করার জন্য উচ্চপর্যায়ে কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। এই প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে দেশের জনগণ দারুনভাবে লাভবান হবে।

ন্যাশনাল লিস্ট অফ এসেন্সিয়াল মেডিসিনে থাকা ৩০০ প্রয়োজনীয় এই ATM থেকে পাওয়া যাবে। এই সমস্থ ব্র্যান্ডেড হবে বলে সূত্রের খবর। অন্ধ্রপ্রদেশে ১৫ টি এই ধরণের ATM লাগিয়ে ফেলা হয়েছে। এই ATM গুলির সফলতা সামনে আসার পর সরকার পুরো দেশ জুড়ে এই ধরনের ATM স্থাপিত করবে। সরকার গ্রামীন এবং শহুরে এলাকায় এই ATM স্থাপিত করবে। চিকিৎসকের দেওয়া প্রেসক্রিপশন ATM পএ ঢুকিয়ে দিলে বা ফোনের মাধ্যমে কামান্ড করলে ATM প্রদান করবে। বিশেষ কিছু ের জন্য টাকাও লাগবে না এই ATM মেশিনে।

6 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.