Press "Enter" to skip to content

নতুন শক্তি এলো বায়ুসেনার হাতে, সাতটি রাজ্যে হবেনা আর কোন অবৈধ অনুপ্রবেশ

যদি কোন ড্রোন, মাইক্রো লাইটস হেলিকপ্টার অথবা কোন বেলুন বায়ুসীমাতে প্রবেশ করলেই সাথে সাথে অ্যালার্ট হয়ে যাবে বায়ুসেনা। অজ্ঞাত উড়ন্ত জিনিষের ছবি নিয়ে তখনই হেডকোয়ার্টারে পাঠানো হবে। আর তৎক্ষণাৎ অনুপ্রবেশ রোখার জন্য অ্যাকশন নেওয়া হবে। স্বাধীনতা দিবসে ভারতীয় বায়ুসেনা মেমোরা এয়ারবেসে ইন্টিগ্রেটেড এয়ার আর্চ আর নিয়ন্ত্রণ প্রণালী কে সম্পূর্ণ ভাবে অপারেশনাল ঘোষণা করে দেয়। এই ইন্টিগ্রেটেড এয়ার আর্চ এবং নিয়ন্ত্রণ প্রণালী অত্যাধুনিক ভার্সনের। এর ফলে বায়ুসীমা রক্ষার ক্ষেত্রে নতুন ক্ষমতা হাসিল করবে বায়ুসেনা। যেকোন প্রকারের অনুপ্রবেশ রুখতে এই ইন্টিগ্রেটেড এয়ার আর্চ দেশের সাতটি রাজ্যে বায়ু সীমায় মোতায়েন করা হবে।

এই ব্যবস্থা প্রবর্তনের সাথে সাথে কৌশলগত, পরিচালনা ও যুদ্ধ কৌশল সম্পর্কিত সমস্ত কর্মকর্তা ও বায়ুসেনার জওয়ানদের সিদ্ধান্ত গ্রহণে সহায়তা করবে। সেন্ট্রাল এয়ার কমান্ড সাতটি রাজ্যে ছড়িয়ে আছে। এই সিস্টেমটি তার পুরো এলাকায় বিমান প্রতিরক্ষা বৃদ্ধি করবে। এই সিস্টেমটি এয়ার ফোর্স স্টেশন মেমোরায় ইনস্টল করা হয়েছে, যা প্রতিটি ধরণের বায়ু হুমকির বিরুদ্ধে তাত্ক্ষণিক পদক্ষেপ নিতে সহায়তা করবে।

আপানদের জানিয়ে রাখি, কাশ্মীর থেকে বিশেষ রাজ্যের তকমা তুলে নেওয়া এবং ৩৭০ ধারা রদের পর থেকে বায়ুসেনা সুরক্ষাকে মজবুত করছে। মেমোরা এয়ারবেসে ইন্সটল হওয়া এই সিস্টেমে হাওয়ায় ওড়া যেকোন জিনিষের ছবি তুলতে সক্ষম, যেগুলোকে দূরবীনের মাধ্যমেও দেখা যায়না। সেই সব অজ্ঞাত জিনিষ গুলোরও সহজেই ছবি তুলতে পারবে এই সিস্টেম।

you're currently offline