Press "Enter" to skip to content

দুর্নীতি ও ঘুষপ্রথাকে গোড়া থেকে উপড়ে ফেলতে নতুন আইন পাশ করালো মোদী সরকার।

স্বাধীনতার পর থেকে দুর্নীতি ির জন্য একটা বড় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। ভারতে দুর্নীতি এমন একটা জায়গায় পৌঁছে গেছিলো যে উচ্চপদস্থ থেকে নিন্মপদস্থ সমস্ত কর্মচারীরা দেশের সিস্টেমকে নষ্ট করে দিয়েছিলেন। তবে আসার পর থেকে দেশে বেশকিছু বড় পদক্ষেপ নেয় যার পর দুর্নীতি অনেকাংশে কমে। যেখানে কংগ্রেস আমলে দেশে কয়লা দুর্নীতি থেকে বফোর্স দুর্নীতির মতো একের পর এক বড় কেলেঙ্কারি সামনে আসতো সেখানে মোদী সরকারের ৪ বছরে কোনো দুর্নীতি সামনে আসেনি। তবে এখনো বিভিন্ন স্তরের মধ্যে ঘুষ দেওয়ার মতো নানান দুর্নীতি চলতেই থাকতে। এখন মোদী সরকার দুর্নীতিকে গোড়া থেকে উপড়ে ফেলতে অপেরাশন ব্ল্যাক আউট শুরু করে দিয়েছে।

আর এই অপেরাশনের ভিত্তিতে এক দারুন আইন নিয়ে এসেছে। নতুন আইন অনুযায়ী ঘুষ নেওয়া ব্যাক্তির সাথে সাথে ঘুষ দেওয়া ব্যক্তিকেও কঠোর সাজা দেওয়া হবে। মোদী সরকারের বক্তব্য যে ব্যাক্তি ঘুষ নেন তিনি যতটা অপরাধী ততটাই অপরাধী যিনি ঘুষ দেন তাই তাকেও কঠোর সাজা দেওয়া হবে। এই আইন দুই সাংসদেই পাশ হয়েগেছে বলে সূত্রের ।যদিও এই আইনের বিরোধিতা করেছে অনেকে।

আইন অনুযায়ী এবার থেকে দোষীদের ৩ থেকে ৭ বছরের সাজা দেওয়া হবে। শুধু এই নয় যদি কেউ তৃতীয় ব্যাক্তির মাধ্যমে ঘুষ নেন না দেন সেক্ষেত্রেও এই নিয়ম লাগু হবে এবং দোষীদের সাজা দেওয়া হবে। সংশোদন বিদায়ক এই সংক্রান্ত মামলা দুই বছরের মধ্যে মেটানোর নির্দেশ দেন।

দুর্নীতি দমনের জন্য মোদী সরকারের নীতি বরাবরই জিরো টলারেন্স এর ছিল। মোদীজি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগেই ঘোষণা করেছিলেন ‘ না খাউঙ্গা না খানে দুঙ্গা’। আর সেই কথা মতো প্রধানমন্ত্রী আধারলিংক ও নোটবন্দির মতো পদক্ষেপ নিয়ে দুর্নীতিবাজদের হাত কেটে ফেলেছিলেন। এবার মোদী সরকার এই আইনের দ্বারা দুর্নীতিবাজদের আরো একবার বড়ো ধাক্কা দিলেন।