Press "Enter" to skip to content

বিশ্বে ভারতের প্রভাব বিস্তার করতে সবথেকে এগিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদী! ইন্দিরা গান্ধী, মনমোহন সিং এর থেকেও এগিয়ে মোদী।

গত পাঁচ বছরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী অন্যান্য জাতির সাথে ভারতের সম্পর্ককে এতটাই ভাল রেখেছেন যে তিনি বিশ্বের সব দিক দিয়েই খ্যাতি পাচ্ছেন। আজ বিশ্বের বেশিরভাগ দেশে প্রধানমন্ত্রী মোদী প্রশংসিত। বলা হচ্ছে বিশ্বে ভারতের প্রভাব বিস্তারের ক্ষেত্র অন্য কোনো প্রধানমন্ত্রীর তুলনায় এগিয়ে রয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। দাবিকে সমর্থন জোগাতে নরেন্দ্র মোদীকে কিভাবে পুরো বিশ্ব সন্মান দিয়েছে তার বিবৃতিও দেওয়া হচ্ছে।

ছয়টি দেশ উনাকে পুরষ্কার দিয়েও সম্মানিত করেছে। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সংযুক্ত আমিরাতের (সংযুক্ত আরব আমিরাতের) সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরষ্কার অর্ডার অফ জায়েদ ভূষিত হয়েছেন। এর আগে প্রধানমন্ত্রী মোদীকে জাতিসংঘ এবং দক্ষিণ কোরিয়া, সৌদি আরব, ফিলিস্তিন, আফগানিস্তান, সংযুক্ত আরব আমিরাতের মতো দেশগুলি ছয়টি পুরষ্কার প্রদান করেছে। এর মধ্যে চারটি পুরষ্কার মুসলিম দেশ থেকে প্রাপ্ত।

প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী এবং মনমোহন সিং প্রত্যেকে একটি করে আন্তর্জাতিক পুরষ্কার পেয়েছেন। ২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রী মোদী আফগানিস্তান সফর করেছিলেন। ঐতিহাসিক আফগান-ভারত বন্ধুত্ব উদ্বোধনের পরে রাষ্ট্রপতি আশরাফ গনি তাকে ৪ জুন আফগানিস্তানের সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মান আমির আমানউল্লাহ খান পুরষ্কার দিয়ে সম্মানিত করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী মোদী ৩ এপ্রিল ২০১৬-এ সৌদি আরবের সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মান রাজা আবদুল আজিজ সাইশ দিয়ে ভূষিত করেছিলেন। ফিলিস্তিনে ১০ ফেব্রুয়ারি নরেন্দ্র মোদীকে গ্র্যান্ড কলার পুরষ্কার দেওয়া হয়েছিল। এই পুরস্কার বিদেশী অতিথিদের দেওয়া ফিলিস্তিনের সেরা সম্মান। ২০১৯ সালের জুনে মালদ্বীপ প্রধানমন্ত্রী মোদীকে তাদের সর্বোচ্চ সম্মান, নিসানে ইজজাদিন দিয়ে সম্মানিত করেছিলেন। এটি মালদ্বীপের বৃহত্তম সম্মান হিসাবে বিবেচিত হয়।