Press "Enter" to skip to content

একশন- কাশ্মীরে সেনার ১০০ কোম্পানি রওনা, ধারা 35A কে বিলুপ্ত করার জন্য শুরু হলো কর্মকান্ড।

মোদী সরকার ে অনেক বড় কর্মকাণ্ডের প্রস্তুতি নিচ্ছে। সরকার জম্মু থেকে ধারা কে শেষ করার প্রস্তুতি নিয়েছে। এই আইন শেষ করার পর অন্য রাজ্যের ভারতীয়রা খুব সহজেই জম্মু ে জমি কিনে সেখানে বসতি গড়তে পারবেন। ঘাঁটির সমস্যা এই যে সেখানে থেকে হিন্দু পন্ডিতদের তাড়িয়ে সম্পুর্ন ইসলামীকরণ করা হয়েছে। এই কারণে ে এখনো জিহাদ চলে যেটাকে সাধারণ ভারতীয়রা আতঙ্কবাদ বলে গণ্য করে। ঘাঁটিতে যে সমস্যা রয়েছে সেটা জম্মু বা লাদাখ প্রান্তে নেই।

তাই কাশ্মীর ঘাঁটির সমস্যার সমাধান শুরু  করতে হলে 35A কে মিটিয়ে দিতে হবে। ২৫ শে ফেব্রুয়ারি অর্থাৎ সোমবার এই ইস্যুতে শুনানি হবে। আর তার ঠিক আগে সরকার কাশ্মীরে প্যারা মিলিটারির ১০০ কোম্পানিকে নিযুক্ত করে দিয়েছে।

 

সরকার হুরীয়ত ও বিচ্ছিন্নবাদী নেতাদের গ্রেপ্তার করে তাদেরকেকে কাশ্মীরের বাইরে নাগাল্যান্ড ও মণিপুরের জেলে ঢুকিয়ে দেওয়ার কাজ শুরু করেছে। একইসাথে মেহবুবা মুফতি, ফারুখ আব্দুল্লাহ, উমর আব্দুল্লাহর মতো নেতাদের সুরক্ষা বাতিল করে দেওয়া জন্য বিচার চলছে। এদের সুরক্ষা বাতিল করে দিলে, এরা এমনিতেই কাশ্মীর থেকে পালিয়ে দিল্লীতে স্মরণ নেবে।

কাশ্মীর থেকে হুরীয়ত নেতাদের গ্রেপ্তার করার সাথে সাথে, মেহেবুবা ও এ আব্দুল্লাহদেরও বাইরে করে দেওয়া হবে।সরকার ইন্টারনেট পরিষেবাকে বন্ধ করার উপরেও আলোচনা করছে। এবার ধরা 35A  ভারতের ইতিহাস হয়ে যেতে পারে। সরকার সেনার ১০০ কোম্পানিকে রওনা করে অনেক বড় সংকেত দিয়েছে। কাশ্মীর সমস্যার চিকিৎসা 35A ও 370 ধারাকে শেষ করেই শুরু করা যেতে পারে। এই ধারার বিনাশ না করলে কাশ্মীর সমস্যার সমাধান করা অসম্ভব।

11 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.