Press "Enter" to skip to content

বড়ো খবর: মোবাইলে পর্ন ভিডিও দেখা ও শেয়ার করা নিয়ে মোদী সরকারের কড়া পদক্ষেপ।

আজকের দিন সোশ্যাল মিডিয়া বিশ্বের উপর এমন প্রভাব ফেলেছে যে পুরো বিশ্বের মানুষ এই জগতের সাথে জুড়ে গেছেন। আজ সোশ্যাল মিডিয়া মানুষের জীবনকে এক চমৎকারভাবে পালটে ফেলেছে। তবে একদিকে যেমন সোশ্যাল মিডিয়া মানুষের জন্য লাভদায়ক তেমনি কিছু মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ার দুর্ব্যবহার করতে শুরু করে দিয়েছে। এখন সোশ্যাল মিডিয়ার খারাপ ব্যবহার এমনভাবে হচ্ছে যে অনেক লোকজন অন্যের ব্যক্তিগত ভিডিও বা ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দিচ্ছে এবং অনেকে সেই ছবির উপর আপত্তিজনক কমেন্ট করে বসে। তবে এই সমস্থ নোংরামি এবার বন্ধ হওয়ার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে।\

আরো পড়ুন – পাকিস্থান কুলভূষণকে ফাঁসি দিলে, উত্তরপ্রদেশের জেলে থাকা ১০ পাকিস্থানিকে ঝুলিয়ে দেব : যোগী আদিত্যানাথ।

দেশে এখন মানুষের কাচের স্মার্ট ফোনের সংখ্যা বেড়ে গিয়েছে। সেই স্মার্টফোন দিয়ে অনেকে অশ্লিল ভিডিও দেখার মতো কাজ করা, বা সোশ্যাল মিডিয়ার সেই ভিডিও শেয়ার করার কাজ করে। এর উপর বহু অভিযোগ মোদী সরকারের কাছে এসেগেছে। তবে এবার অসভ্যতামি বন্ধ, প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, যদি আপনার ফোনে , ল্যাপটপে চাইল্ড পর্ন এর সাথে জড়িত ভিডিও, ছবি পাওয়া যায় তাহলে আপনার ৫ বছরের জেল হতে পারে।

এরজন্য সরকার সাইবার ক্রাইম ডট জিঅভি ডট নামে পোর্টাল শুরু করেছে। যেখানে আপনি শিশু পর্ন, ধর্ষণ বা গণধর্ষণ এর উপর ভিডিও নিয়ে অভিযোগ জানাতে পারবেন। অভিযোগ জানানোর সাথে সাথে অভিযুক্ত এর ফোন ট্রেস করা হবে এবং তাকে গেপ্তার করা হবে। সরকারের মুল উদ্দেশ্যে এই সমস্থ খারাপ ফটো, ভিডিও এর উপর ব্যান লাগানো। এতে বাচ্চাদের সাথে হওয়া ক্রাইমকে অনেকাংশে আটকানো যাবে।

সরকার ভারতে চলা বিভিন্ন পর্ন ওয়েবসাইটের উপরেও ব্যান লাগানো শুরু করে দিয়েছে। সাধারণ মানুষের দাবি সরকারের এই পদক্ষেপে দেশের ও সমাজের মঙ্গল হবে। জানলে অবাক হবেন এই পর্ন ওয়েবসাইট এর জন্য ভারতের মানুষের মধ্যে খারাপ ভাবনার প্রভাব বেশ ভালো ভাবে কবজা করেছে। সরকারের এই পদক্ষেপে সমাজ, বিশেষকরে যুবসমাজ একটা সুচিন্তা নিয়ে এগোতে পারবে।