Press "Enter" to skip to content

কাশ্মীর থেকে বিতাড়িত হিন্দুদের বাড়ি ও ২১ লক্ষ টাকা দেওয়ার ঘোষণা মোদী সরকারের।

কিছু দিন আগে বিজেপি জম্মু-কাশ্মীর থেকে তাদের জোট সরকারের উপর থেকে সমর্থন তুলে নিয়েছিল। এখন সেখানে রাজ্যপাল শাসন জারি হয়েছে। এই সমর্থন তোলার মাধ্যমে বিজেপি সবাই কে বুঝিয়ে দিয়েবহিল যে এবার জম্মুকাশ্মীরে জিহাদি ও দেশবিরোধী শক্তিকে দমন করার সাথে সাথে ৯০ এর দশকে যে হিন্দুদের গণহত্যা করে তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল তাদের জন্য সুব্যবস্থা করবে কেন্দ্রের মোদী সরকার। আর সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী কেন্দ্রের মোদী সরকার এবার এই কাশ্মীরের হিন্দু পন্ডিতদের জন্য নিতে চলেছে বড়ো পদক্ষেপ। জানা যাচ্ছে যে ৯০ এর দশকে কাশ্মীরে ইসলামিক সন্ত্রাসবাদের অত্যাচারে জর্জরিত হয়ে সেখানকার অনেক হিন্দু পরিবার সহ কাশ্মীরী পন্ডিত বা কাশ্মীরের ভূমিপুত্ররা কাশ্মীর ছাড়তে বাধ্য হয়। তাদের উপর তখন অকথ্য অত্যাচার করা হত। তাই তারা কাশ্মীর ছেড়ে অন্যত্র চলে যায়। আপনাদের জানিয়ে রাখি মোদী সরকার যখন কাশ্মীরি পন্ডিতদের জন্য আলাদা করে টাউনশিপ করার কথা বলেছিল সেই সময় কট্টরপন্থী জিহাদি ও বেশকিছু সেকুলারপন্থীরা মোদী সরকারের বিরুদ্ধে পথে অনশনে বসেছিল যাদের মধ্যে আতঙ্কি সমর্থক ইয়াসিন মল্লিক ও ভন্ড স্বামী অগ্নিবেশও ছিলেন।

কিন্তু মোদী সরকার এই হিন্দু বিরোধীদের তোয়াক্কা না করেই কাশ্মীরি হিন্দু পন্ডিতদের আবার তাদের নিজেদের জন্মভূমিতে ফিরিয়ে আনার জন্য কেন্দ্রের মোদী সরকার ইতিমধ্যে তাদের জন্য বাড়ির নির্মান করা শুরু করে দিয়েছেন। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী তাদের জন্য বাড়ি বানানো হবে উত্তরে বারামুলা, রাজ্যের দক্ষিনে অনন্তনাগ এবং কুপওয়ারাতে এই ক্লাস্টার বানানো হচ্ছে। এছাড়া এই ক্লাস্টার বানানো হচ্ছে শ্রীনগরের কাছেও। কাশ্মীরের চারিপাশে যেখানে যেখানে এই বাড়ি বানানো হবে সেখানে অন্য ধর্মের লোকেদের বাড়ী বানানো বা ঢোকা নিষিদ্ধ থাকবে। এখানে যত গুলি বাড়ি বানানো হবে সেই সব বাড়ি একই রকমের হবে।

জানা যাচ্ছে যে কাশ্মীরের হিন্দু পরিবার গুলি কে সুরক্ষিত করার জন্য এবং তাদেরকে আবার নিজেদের বাড়িতে ফিরিয়ে আনার জন্যই কেন্দ্র সরকার সেখানকার রাজ্য সরকারের থেকে জোট প্রত্যাহার করে নেন। কারন সেখানকার মেহেবুবা সরকার কেন্দ্রের এই কাজে বাঁধা সৃস্টি করছিল। সেখানকার জঙ্গীদের নির্মূল করতে লাগাতার অপারেশন করা হয়। আরও জানা যাচ্ছে যে এদেরকে নতুন বাড়িতে পাঠানো হবে আগামী লোকসভা নির্বাচনের আগেই।

শুধু তাই নয় প্রত্যেক পরিবারকে ২১ লক্ষ টাকা করেও দেবে কেন্দ্র সরকার তাদের নুতন জীবন ভালো ভাবে শুরু করার জন্য। একটি পরিসংখ্যানে জানা যাচ্ছে যে সারা দেশে প্রায় ৬২ হাজার কাশ্মীরি হিন্দু ছড়িয়ে আছেন। ৯০ এর দশকে কংগ্রেস সরকারের সাহায্যে যাদের উপর গণহত্যা চালানো হয়। সেই সময়কার কংগ্রেস সরকারের কাছে কোনো রকম সাহায্য না পেয়ে প্রান বাঁচাতে তারা কাশ্মীর ছাড়তে বাধ্য হন। জানা যাচ্ছে যে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে আগামী অক্টোবর মাসে এই প্যাকেজ ঘোষণা করা হতে পারে।
#অগ্নিপুত্র