Press "Enter" to skip to content

এবার তিন তালাক ও হালালা নিয়ে বিরোধীদের আক্রমণ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

বিজেপি সরকার কেন্দ্রে আসার পর থেকে মুসলিম মহিলাদের সামাজিক উন্নয়নের জন্য জোরদার প্রয়াস শুরু করেছে। কেন্দ্রে বহু বছর ধরে রাজত্ব করেও কংগ্রেস শুধু মাত্র ভোটব্যাঙ্কের জন্য ও হালালার মতো কুপ্রথার বিরুদ্ধে আওয়াজ উঠতে পারেনি। কিন্তু মোদী সরকার আসার পরই ও হালালা থেকে পীড়িত হওয়া মহিলাদের পাশে দাঁড়ায় এবং প্রথাকে বন্ধ করার সিধান্ত নেই।

অন্যদিকে ার উপরেও আদালতে কেন্দ্র নিজেদের রায় পরিষ্কার রাখবে বলে জানা গিয়েছে। যদিও বিরোধীরা বরাবরই মোদী সরকারের এই সিদ্ধান্তের চরম বিরোধিতা করেছে। আর এই নিয়েই এদিন আজমগড়ে বক্তিতা দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মোদীজি বলেন দেশের কোটি কোটি মুসলিম মা, বোনেরা তিন তালাক থেকে রেহাই পাওয়ার জন্য আদালতের দারস্ত হয়েছিল কিন্তু বিরোধীরা এক হয়ে তিন তালাক আইনের বিরোধিতা করেছিল।কেন্দ্র সরকার যেখানে মহিলাদের এবং বিশেষ করে মুসলিম মহিলাদের জীবনকে সুন্দর করার জন্য নিরন্তর চেষ্টা করছে সেখানে বিরোধীরা মহিলাদের আরো সংকটে ফেলছে। মোদীজি বলেন বিশ্বের ইসলামিক দেশগুলিতেও তিন তালাক বন্ধ রয়েছে।

মোদীজি বিরোধীদের উদেশ্য এ বলেন যান গিয়ে তিন তালাক এ শোষিত, নিকাহ হালালা প্রথায় শোষিত মহিলাদের সাথে কথা বলে আসুন তারপর সাংসদে বিলের বিরোধিতা করবেন। মোদীজি বলেন, ২১ শতাব্দিতে এই সব রাজনৈতিক দল যারা এখণ ১৮ শতাব্দিতে আটকে আছে তারা মোদীর বিরোধিতা করতে পারে কিন্তু উন্নতি করতে পারে না। বিরোধীরা মোদীর বিরোধিতা করলেও এরা কখনও দেশের উন্নয়ন করতে পারবে না। আপনাদের জানিয়ে রাখি মোদীজির এই বক্তব্য রাজনৈতিক মহলে মুসলিমতোষণকারীদের বিপদে পড়েছে। কারণ মোদীজি তার বক্তব্যের মাধ্যমে বিরোধীদের সম্পুর্নভাবে পর্দাফাঁস করে দিয়েছেন।