Press "Enter" to skip to content

মোদীর বিরুদ্ধে বিশাল জনসভা করতে গিয়েছিল কানাইয়া কুমার, জিগ্নেস ও হার্দিক প্যাটেল! ৫০০ জনও উপস্থিত হলো না সভা দেখতে।

রালি হিট হবে নাকি ফ্লপ হবে তার পুরোটাই জনগণের উপর নির্ভর করছে। জনগণ কোনো নেতাকে কতটা ভালোবাসে তা ভিড় দেখেই বোঝা যায়। অবশ্য আজকাল নানা প্রলোভন দেখিয়েও ভিড় জমায়েত করা যায়। অবশ্য প্রলোভন দেখিয়ে হাজার সংখ্যক লোক জমায়েত করা যায়, লক্ষ লক্ষ নয়।

গুজরাটের রাজকোটে নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে একটা বড় রালির আয়োজন করা হয়েছিল। এই রালির আয়োজন করেছিল হার্দিক প্যাটেল, জীগনেস মেবানি এবং কানাইয়া কুমার। হার্দিক প্যাটেল নিজেকে প্যাটেল সমাজের নেতা বলে দাবি করে, জিগ্নেস মেবানি নিজেকে দলিতদের নেতা বলে দাবি করে এবং কানাইয়া কুমার নিজেকে বামপন্থী নেতা বলে দাবি করে।

রাজকোটে এই তিনজনের সংযুক্ত রালি ছিল এবং নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে এই তিনজন রালির আয়োজন করেছিল। কিন্তু এই তিনজনের ভাষণ শুনতে ৫০০ জন মানুষও উপস্থিত হয়নি। রালিতে যে চেয়ার রাখা হয়েছিল তা প্রায় খালি ছিল। মঞ্চ হাউসফুল কিন্তু রালি ফ্লপ। রালির জন্য যে গ্রাউন্ড বুক করা হয়েছিল সেটা প্রায় খালি ছিল। নীচে একটা ভিডিও দেওয়া হলো। এই ভিডিও সেই মুহূর্তের যখন তিন জন স্বঘোষিত নেতা মঞ্চে উপস্থিত ছিল। নীচে ভিডিও দেখুন-

দেশের দালাল মিডিয়া এই রালির সম্পূর্ন ছবি দেখায়নি। যে অংশে একটু মানুষজন রয়েছে সেই অংশের ছবি তুলে খবর ছেপে দিয়েছে। জাত পাতের নামে হিন্দুদের ভাগ করা নেতাদের মুখে ঝামা ঘষে দিয়েছে গুজরাটের মানুষ।একইসাথে টাকা খেয়ে খবর পরিবেশন করা মিডিয়াও ঘটনা নিয়ে হতাশ রয়েছে। -
বিরোধী হাওয়া দেখার জন্য বহু দালাল মিডিয়ার চোখ এই রালির উপর ছিল কিন্তু জনগণ সবার চোখে আঙুল ঢুকিয়ে দিয়েছে।

12 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.