Press "Enter" to skip to content

দিল্লীতে বিজেপির তরফ থেকে ইনি হবেন মুখ্যমন্ত্রী পদের পার্থী! নাম শুনে কেজরিওয়ালের বেড়ে গেল হৃদস্পন্দন।

এই মুহূর্তে রাজনীতি নিয়ে আলোচনা সমালোচনা তুঙ্গে। সমস্য বড়ো পার্টির বড়ো নেতারা বিভিন্ন জায়গায় জনসভার আয়োজন শুরু করেছে। প্রত্যেক রাজ্য জুড়ে হৈচৈ শুরু হয়েছে এবং একে অপরের উপর কটাক্ষের বান ছোঁড়া শুরু হয়েছে। অন্য দিকে দিল্লীর নির্বাচনের কথা বললে, আজ কেজরিওয়াল তার সংসদীয় ক্ষেত্রে পার্টির কার্যালয়ের উদ্বোধন করেন এবং বলেন ২০১৯ এ আম আদমি পার্টি দিল্লীর সমস্থ লোকসভা কেন্দ্রে জেতার পরিকল্পনা করে ফেলেছে। আর কেজরিওয়ালের এই মন্তব্যকে ঘিরেই সমস্থ পার্টির মধ্যে আলোচনা সভা বসে গিয়েছে। কারণ বিজেপি ও কংগ্রেস দুই পার্টি দিল্লীকে টার্গেট করে কাজ শুরু করেছে।

জানিয়ে দি, কেজরিওয়াল যে ইস্যু গুলির কারণে মুখ্যমন্ত্রী পদে বসেছে তার মধ্যে একটা মূল কারণ ছিল আন্না হাজারে অভিযান। আসলে দিল্লীর জন্য বিজেপি ও কংগ্রেস দুই পার্টি নিজেদের কোমর বেঁধে নিয়েছে। এখানে ক্ষমতায় আসা লোকসভা ও বিধানসভা দুটোর জন্যেই গুরুত্বপূর্ণ। বিজেপিতে এই সময় অনেক দ্বিগজ নেতা রয়েছে যাদের নাম বার বার দিল্লীর রাজনীতিযে গুঞ্জতে শুরু হয়েছে।

তবে এই সময় সবথেকে বড়ো যে নাম লাগাতার শোনা যাচ্ছে সেই নাম হলো মনোজ তেওয়ারী। ইনি এখন পূর্ব দিল্লী থেকে সাংসদ রয়েছেন এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে কাজ করছেন। মনোজ তেওয়ারী শুধু সোশ্যাল মিডিয়ায় নয়, সোশ্যাল মিডিয়ার সাথে সাথে অন্যান স্থানেও ছেয়ে রয়েছেন এবং দিল্লীবাসীর মনে গেঁথে গিয়েছেন।

সম্প্রতি বিখ্যাত সাংবাদিক অঞ্জনা ওম কাসব এক অনুষ্ঠানে উপস্থিত মনোজ তেওয়ারীকে উদ্দেশ্য করে বলেন যে আগত সময়ে ইনাকে দিল্লীর মুখ্যমন্ত্রী পদে দেখা যাবে। উত্তরে মনোজ বলেন, তাহলে সেটা তো অনেক বড়ো সারপ্রাইজ হবে। অর্থাৎ দিল্লীর সাংবাদিক থেকে সাধারণ মানুষ এখন থেকেই মনোজ তেওয়ারীকে মুখ্যমন্ত্রী পদের জন্য মনে বসিয়ে নিয়েছেন।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.