Press "Enter" to skip to content

ট্রেনে অযোধ্যার উদ্দেশ্যে রওনা দিচ্ছিল রামভক্তরা, এরপর মুসলিমরা এসে যা করলো তা আপনাকেও গর্বিত করবে।

গতকাল অর্থাৎ ২৫ শে নভেম্বর বিশ্ব হিন্দু পরিষদের তরফে একটি ধর্মীয় সভা অনুষ্ঠিত করা হয়েছিল। সেই জন্যেই এইদিন দেশের সমস্ত হিন্দুদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল  সেই সভাতে। আর সেই লক্ষ্যে ধর্মীয় সভাতে যোগদানের জন্য দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে রামভক্তরা ইতিমধ্যেই রওনা দেওয়া শুরু করে দিয়েছিল একদিকে যেমন দেশের সমস্ত বিরোধী দল গুলি হিন্দুদের এই সভাকে অসফল করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছিল। তাই তারা বারবার মিথ্যা দাবি করছে যে, এই সভা হল মুসলিমদের জন্য অশান্তির আর এই দাবি করে তারা বারেবারে সরকারেরর উপর চাপ সৃষ্টি করতে চাইছেন। ঠিক উল্টো দিকে এক অন্য ছবি। অন্যদিকে উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের বারাবাঙ্কি নামক এক জায়গায় মুসলিমরা সুন্দর পরিবেশের সৃষ্টি করেছেন। সেখানকার মুসলিমরা বিরোধী দল গুলির কথায় বিন্দুমাত্র কান দিতে নারাজ। সেখানকার মুসলিমরা হিন্দু সভায় যারা যাচ্ছেন তাদের সকল কে ফুলের মালা দিয়ে বরণ করেন এবং ফুল ছড়িয়ে তাদের যাত্রাপথ শুভ করেন। এরফলে বোঝায় যাচ্ছে যে, তাদের উপর বিরোধী দলের নেতানেত্রীদের মিথ্যা প্রচার কোনো প্রভাব ফেলতে পারে নি।

এইদিন এক সংবাদ মাধ্যম রাহুল নামে এক রাম ভক্তের সাথে কথা বলেন। উনিও এইদিন সেই ধর্মীয় যাত্রার উদ্দেশ্য রওনা দিয়েছিলেন কানপুর থেকে অযোধ্যায়। উনি বলেন যে, আমরা সকলে মিলে যাচ্ছি নির্মাণের উদ্দেশ্যে ধর্মীয় শোভাযাত্রায় অংশ নিতে। কিন্তু আমাদের মন জয় করে নিলেন বারাবাঙ্কির মুসলিম ভাইরা। অন্যদিকে আরেক ব্যাক্তির সাথে এইদিন কথা হয়। উনি হলেন রাজা করিম উনিও এইদিন সকলের সাথে মিলে রামভক্তদের স্বাগত জানান।

IMG_20181125_103403

উনার দাবি হল “আমরা যদি ভগবান শ্রী রাম চন্দ্রের মন্দির নির্মাণের জন্য কিছু করে সাহায্য করতে পারি তাহলে সেটা হবে আমদের কাছে অত্যন্ত গর্বের বিষয়।” কারণ  ‘ ভগবান শ্রী রাম হলেন আমাদের ‘ইমামুল হিন্দ।” উনি এইদিন বিরোধীদের কটাক্ষ করে বলেন যে, দেশের  বিরোধী দল গুলি মিথ্যা প্রচার করছে। তারা নিজেদের স্বার্থের জন্য আমাদের ধর্মের নাম ব্যবহার করছে। কিন্তু এটা করা ঠিক না। কারণ দেশের বহু মুসলিম চান যে, অযোধ্যায় রাম মন্দির হোক।

IMG_20181125_104747

কারণ ভগবান রামের জন্মস্থান এই অযোধ্যাতেই। তাই অযোধ্যায় যদি রাম মন্দির না হয়ে কি সেটা পাকিস্তান বা আফগানিস্তানে হবে? উনি আরও বলেন যে, ভগবান রাম আমাদেরও পূজিত। একবার যদি রাম মন্দির হয়ে যায় তাহলে একদিকে যেমন দেশের সকল মানুষের ভালো হবে অপরদিকে রামমন্দির নিয়ে রাজনীতি করা দল গুলির মুখ বন্ধ হয়ে যাবে। সেই জন্যই এই রামমন্দির নির্মাণ খুবই জরুরি।

প্রিয়াঙ্কা রাওয়াত যিনি হলেন বারাবাঙ্কির বিজেপি সাংসদ তিনি এইদিন রামমন্দির নির্মান নিয়ে বলেন, প্রভু শ্রী রাম চন্দ্র শুধু একটি ধর্মের মানুষের জন্য নয়, উনি হলেন পৃথিবীর সমস্ত শ্রেণীর মানুষের কাছে আরাধ্য। সেই সাথে উনার মতে রাম মন্দির নির্মাণের দাবিতে জনসভায় যাওয়া হিন্দুদের উপর মুসলিমরা যেভাবে পুষ্পবৃস্টি করলেন তাতে ফের একবার প্রমান হয়ে গেল ভারতবর্ষে হিন্দু মুসলিম ভাই ভাই। ভোটের লোভে দেশের  বিরোধী দল গুলি হিন্দু মুসলিম ভেদ করতে পারবেন না।
#অগ্নিপুত্র

6 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.