Press "Enter" to skip to content

আদালতের আদেশ অমান্য করে তাজমহলে নামাজ পড়েছিল কট্টরপন্থীরা, এরপর বজরং দল যা করলো….

পুরো বিশ্বের কাছে ভারতবর্ষের তাজমহল হল এক আকর্ষনীয় স্থান। এখানে ভরতের বাইরে থেকে অনেক লোক আসেন তাজমহল দেখার জন্য। তাই যাতে কোনো মানুষের অসুবিধা না হয় সেই জন্য ভারত সরকার অনেক কিছু নিয়মবিধি করে দিয়েছেন এখানে। বিশেষ করে তাজমহলের মধ্যে যাতে না পড়া হয় সেই জন্য নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন ভারতীয় প্রত্নতাত্বিক বিভাগ ASI, কিন্তু এই নিষেধাজ্ঞা কে পরয়া না করে সেখানে পড়েছে কিছুজন। এরফলে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। সম্প্রদায়ের নামাজ পরার জন্য এবার হিন্দু সংগঠন তাজমহলে পূজা করার কথা ঘোষণা করেছেন। এমনকি কিছু নামাজ পড়ার বিরোধ করেছে কারণ এটা আদালত বিরোধী কাজ।

এইদিন অর্থাৎ মঙ্গলবার তাজমহল ইতজামিয়া কমিটির সদ্যসেরা সরকারি নিষেধাজ্ঞা কে গ্রাহ্য না করে জোরপূর্বক সেখানে নামাজ আদায় করেন। সেই জায়গাটি কিছুটা অপরিষ্কার থাকার কারনে সেই জায়গাটি কে তারা পানীয় জল দিয়ে পরিষ্কার করে ফলে বহু পানীয় জলের অপচয় হয়েছে। সেই সময় তাদের সেই সমস্ত কাজকর্ম দেখে তাদেরকে আটকানোর চেষ্টা করেন পুরাতত্ব বিভাগের আধিকারিকরা। কিন্তু সেই সময় তারা কোনো বাঁধায় মানে নি উল্টে জোরপূর্বক এই সমস্ত কাজকর্ম করেন। এবং পুরাতত্ব বিভাগের আধিকারিকদের সাথে অসভ্য ব্যাবহার করেন।

আপনাদের জানিয়ে রাখি, শুধুমাত্র শুক্রবার নামাজ পরা যাবে তাজমহল চত্বরে এমনই নিদান দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট ১৯ জুলাই ২০১৮তে। কিন্তু তার সত্ত্বেও সুপ্রিম কোর্ট কে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে মঙ্গলবার কিছু মুসলিম সম্প্রদায়ভুক্ত মানুষ তাজমহলে নামাজ পড়েন।

এইসব নিয়মভঙ্গ দেখে বজরং দল ঘোষনা করেন যে, মুসলিমরা যদি আইন ভেঙে তাজমহলে নামাজ পরতে পারে তাহলে আমরাও পূজা পাঠ করব তাজমহলে।
অগ্নিপুত্র