Press "Enter" to skip to content

নিজেকে ও শিশুকে ধর্ষকের হাত থেকে রক্ষা করতে, ধর্ষককে খুন করে মাটিতে পুঁতে দিলেন মহিলা

জীবন যায় যাক, তবুও সন্মান যেন না যায়। নিজেকে ও নিজের শিশুকে ধর্ষকের হাত থেকে রক্ষা করতে ধর্ষককেই কুপিয়ে খুন করলেন বছর ৭০ এর মহিলা। এমনকি ধর্ষককে কুপিয়ে খুন করে শেষে তাঁকে মাটিতে পুঁতে পুলিশের সাথে আত্মসমর্পণ মহিলার। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগণার উস্থিতে। এই ঘটনার পর চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার রাতে ঘরে একা থাকা মহিলা ও তাঁর চার বছরের শিশুর সাথে দুষ্কর্ম করার জন্য পাড়ার এক যুবক না তপন সাউ ওই মহিলার বাড়িতে যায়। অভিযুক্ত তপন সাউ ওই মহিলাকে ধর্ষণ করার চেষ্টা করলে, মহিলা নিজের হাতে অস্ত্র তুলে তপন সাউকে কুপিয়ে খুন করেন।

অভিযোগ অনুযায়ী, অভিযুক্ত যুবক তপন সাউ এলাকার সব মহিলাদেরই মাঝে সাঝে উত্তক্ত করত। আর সেই ক্রমেই বৃহস্পতিবার রাতে মহিলার বাড়িতে যায় ওই মহিলাকে ধর্ষণ করতে। তপন সাউ হয়ত এই পরিনামের কথা জীবনেও চিন্তা করেছিল না। নিজের এবং নিজের কন্যা সন্তানের জীবন বাঁচাতে নিজের হাতেই অস্ত্র তুলে নেন ওই মহিলা। মহিলার ধারালো অস্ত্রের কোপে প্রাণ যায় ধর্ষক তপন সাউ এর। অবশেষে মৃত তপন সাউকে নিজের বাড়ির পাশে কলা বাগানে নিয়ে গিয়ে পুঁতে দেন ওই মহিলা।

ঘটনার দুদিন পর থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেন মহিলা। মহিলা জানান, নিজের এবং নিজের শিশু কন্যার সম্ভ্রম রক্ষা করতেই তিনি এই পদক্ষেপ নিয়েছিলেন। ওই মহিলাকে গ্রেফতার করে ১৪ দিনের জেল হেফাজতে নিয়েছে উস্থি থানার পুলিশ। আরেকদিকে অভিযুক্ত যুবক তপন সাউ এর দাদার দাবি অনুযায়ী, তাঁর ভাইকে পুরোনো আক্রোশের জেরেই খুন করা হয়েছে। তিনি এখন তাঁর ভাইয়ের খুনির শাস্তি চাইছেন।