Press "Enter" to skip to content

“নরেন্দ্র মোদী অধার্মিক ও দেশদ্রোহী মানুষ” : নবজ্যোত সিং সিদ্ধু, কংগ্রেস নেতা।

কংগ্রেসে খুব তাড়াতাড়ি উপরে উঠার জন্য একটা নীতি রয়েছে। নীতি অনুযায়ী কংগ্রেসের উপরে পদ পেতে হলে বা উচ্চস্তরীয় নেতা হলে সোনিয়া এবং রাহুল গান্ধীকে খুশি করতে হবে। অন্যদিকে সোনিয়া ও রাহুল গান্ধীকে খুশি করার সবথেকে সহজ উপায় হলো খোলাখুলি দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে গালিগালাজ করা। আপনি যদি কংগ্রেসের কার্যকর্তা হন তাহলে এই নীতি আপনার ক্ষেত্রেও লাগু হবে। আর এই কারণে লোকসভা ভোটের আগে কংগ্রেসের নেতারা খোলাখুলি নরেন্দ্র মোদীকে গালিগালাজ করতে শুরু করে দিয়েছে। এই ঘটনায় বিতর্কিত কংগ্রেস নেতা নাবজোত সিং সিদ্ধুএ পিছিয়ে নেই। কংগ্রেস নেতা নবজ্যোত সিং সিদ্ধু এবার প্রধানমন্ত্রী মোদীকে অধর্মী ও দেশদ্রোহী বলে গালাগালি করে বিতর্কে চলে এসেছেন। নবজ্যোত সিং ছত্রিশগড়ে পৌঁছেছিলেন প্রচারের জন্য। সেখানে উনি প্রধানমন্ত্রী মোদীকে অধর্মী ও দেশদ্রোহী বলা গালাগালি করেছেন এবং পরে সেটা তিনি টুইটারেও প্রকাশ করেন। তবে যখন সাধারণ মানুষ এটা নিয়ে জবাব দিতে শুরু করে তখন কংগ্রেস নেতা টুইট ডিলিট করে দেন। কংগ্রেসের নেতারা এমনি যে প্রধানমন্ত্রী মোদীকে গালাগালি করতে এতটুকুও ইতস্তত বোধ ইনারা করেন না।

এমনকি সোনিয়া গান্ধী পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীকে রক্তের দালাল বলে গালিগালাজ করেছিলেন। আর এখন কংগ্ৰসের বড়ো থেকে ছোট সব নেতারাই বিরোধিতার আড়ালে প্রধানমন্ত্রীকে গালিগালাজ দিতে শুরু করেছে। সিদ্ধু সোনিয়া গান্ধীকে খুশি করার জন্য বলেছেন, ” নরেন্দ্র মোদী অধর্মী, মোদী দেশদ্রোহী, মোদী দুর্গন্ধ ছড়ায়।”

সিদ্ধুর কাছে হিন্দু সম্রাট নরেন্দ্র মোদী একজন দেশদ্রোহী ও অধার্মিক। কিন্তু রাহুল গান্ধী যিনি মানস সরোবর যাত্রায় গিয়ে শুয়ার ও চিকেনের মাংস খেয়েছিলেন তিনি ধার্মিক ও দেশপ্রেমি।