“নেহেরু ভারত দেশকে স্বাধীন করেছে তাই সকলকে মানতে হবে সোনিয়া গান্ধীর কথা”: নবজোত সিং সিদ্ধু, কংগ্রেস নেতা।

বাংলা খবর : নবজ্যত সিং সিদ্ধু বললেন আপত্তিজনক মন্তব্য !

সিধুর পাকিস্থান যাত্রা নিয়ে উৎপাত শেষ হতে না হতেই আরো এক বিতর্কিত মন্তব্য করে বসেছেন উনি। কংগ্রেস নেতা নবজোত সিং সিদ্ধ রাজস্থানে নির্বাচনী প্ৰচার চালানোর সময় দেশ স্বাধীন নিয়ে ভুলভাল মন্তব্য করে বসেছেন। সিধু বলেছেন প্রত্যেককে সোনিয়া গান্ধীর সন্মান করতে হবে কারণ নেহেরু এই দেশকে স্বাধীন করেছে। রাজস্থানর মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজ নির্বাচনী প্রচারের সময় সোনিয়া গান্ধীর উপর রাজনৈতিক হামলা করেছিলেন।

যার জবাব দিতে রাজস্থানে পৌঁছেছিলেন বর্তমানের বিতর্কিত কংগ্রেস নেতা নবজোত সিং সিধু। বসুন্ধরা রাজকে জবাব দিতে গিয়ে সিধু বলেন, ” কান খুলে শুনেনে এই দেশকে স্বাধীন করেছে নেহেরু-গান্ধী, তাই সকলকে সোনিয়া গান্ধীর সন্মান করতে হবে।” সিধুর কথা অনুযায়ী, নেহেরু-গান্ধী না থাকলে এই দেশ থাকতো না।

পুরো দেশ নেহের-গান্ধীর জন্য রয়েছে তাই সকলকে সোনিয়া গান্ধীর সন্মান করতে হবে, সকলকে সোনিয়ার কথা মেনে চলতে হবে। তবে সিধু এটা বলতে পারেননি যে ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনে সোনিয়া গান্ধী বা সোনিয়ার মাতা পিতার কি যোগদান ছিল। জানিয়ে দি, কংগ্রেস নেতাদের এই মানসিকতা বরাবরের যে ভারত দেশকে নেহেরু-গান্ধী স্বাধীন করেছে এবং তারাই দেশকে নতুন করে গড়ে তুলেছে। এই কারণে কংগ্রেসিরা গান্ধীকে রাষ্ট্রপিতা অর্থাৎ এই মহান দেশের পিতা বলে ঘোষণা করে।

যে দেশকে ভগবান শ্রী রাম মা বলে পুজো করতেন, গান্ধীকে সেই দেশের পিতা সাজিয়ে দিয়েছে কংগ্রেস। সিধুর মতে এই দেশকে স্বাধীন করেছে নেহেরু-গান্ধী। কিন্তু আসলে দেশকে স্বাধীন করার পেছনে রয়েছে বহু বলিদানি মানুষের ত্যাগ। ইংরেজদের রেকর্ড অনুযায়ী , ভারত স্বাধীন করার জন্য ৭ লক্ষ ৩২ হাজার ভারতীয় ১৮৫৭-১৯৪৭ এর মধ্যে বলিদান দিয়েছেন। দেশ স্বাধীন করতে এত এত বীরের রক্ত বয়ে গেছে কিন্তু সিধুর মতে দেশ স্বাধীন করেছে নেহেরু-গান্ধী। এমনকি দেশ স্বাধীনের পর প্রায় ৫৫০ ভাগে বিভাজিত হয়ে থাকা ভারতকে এক করেছিলেন বল্লবভাই প্যাটেল। কিন্তু বিক্রীত ইতিহাসকার ও কংগ্রেসের মতে এই দেশের যা কিছু সব হয়েছে নেহেরু-গান্ধীর।

প্রিয় পাঠকদের জন্য প্রশ্নঃ উপরের খবরের উপর আপনাদের পতিক্রিয়া জানান।

Leave a Reply

Open

Close