Press "Enter" to skip to content

যে পাক আর্মি জেনারেলের সাথে সিদ্ধু গলা মিলিয়েছিল, তিনি ভারতকে যা বললেন জানলে রেগে লাল হবেন।

১৮ আগস্ট প্রতিবেশী দেশ ে নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপদ নিয়েছিলেন ইমরান খান। তার একদিন আগে অর্থাৎ ১৭ আগস্ট ভারতরত্ন অটল বিহারী বাজপেয়ীর অন্তিম যাত্রা বের করা হয়েছিল। সেই সময় সকলেই পার্টিগত ব্যাপার ভুলে অটলজিকে শেষ সন্মান জানানোর জন্য উপস্থিত হয়েছিলেন। একমাত্র কংগ্রেস নেতা নবজোত সিং সিদ্ধু যাওয়ার রুচি দেখিয়েছিলেন এবং গিয়েছিলেন। ১৭ আগস্ট সন্ধের সময় সিদ্ধু পৌঁছেগেছিলেন এবং ১৮ ইমরান খানের শপদ গ্রহনের সময় ের আর্মি চিফ জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়ার সাথে গলা মিল করেন। এখন সেই ভারতকে ধমকি দিতে শুরু করেছে। আসলে সিদ্ধুর এই প্রেমের পর দেশজুড়ে খুব নিন্দা হয়েছিল এবং আজও হচ্ছে। সিদ্ধু সেই ব্যাক্তির সাথে গলা মিলিয়ে ছিল যার উপর ীয় সেনাদের হত্যার অভিযোগ রয়েছে।

দেশ কোনোভাবেই এই বিষয় মেনে নিতে পারেনি, কিন্তু সিদ্ধু নিজেকে শান্তি দূত মনে করে বাজওয়ার সাথে গলাগলি করেন।এলহন সেই পাকিস্থানি জেনারেল ভারতকে হুমকি দিয়ে বলেছে ‘পাকিস্থান সেনা প্রত্যেক রক্তের বদলা নেবে।’ জানিয়ে দি যেভাবে ভারতীয় সেনা সীমায় আতঙ্কবাদীদের অপেরাশন শুরু করেছে তাতে হচকচিয়ে উঠেছে পাকিস্থান। শুধু এই নয় মোদী সরকারের কারণে পুরো বিশ্ব পাকিস্থানকে এক ঘরে করে দিয়েছে।

পাকিস্থানের উপর আন্তর্জাতিক চাপ সৃষ্টি করা হয়েছে যাতে পাকিস্থান আতঙ্কবাদ ছড়ানোর জন্য জমি না দেয় তার জন্য। জঙ্গি তৈরির অভিযোগে আমেরিকা পাকিস্থানের ৮০০ কোটি আমেরিকা ডলার আটকে দিয়েছে। যার জন্য পাকিস্থান পুরো টলমলিয়ে গেছে। যার থেকে হচকচিয়ে পাকিস্থান ভারত থেকে রক্ত নেওয়ার কথা বলেছে। এমনিতে ভারতের কাছে পাকিস্থানের এরম অনেক ধমকি আছে তাতে উল্টে মার খেতে হয় পাকিস্থানের জঙ্গিদের। জানিয়ে দি বাজওয়া এই কথা রাওয়াল পিন্ড জেনারেল মুখ্যালয় থেকে বলেছে।

বাজওয়ার এই বক্তব্য এর পরে সিদ্ধু বেশ বড়োরকমের ঝটকা পেয়েছে এবং দেশজুড়ে সিধুর উপর লোক মজা উড়ানো শুরু করেছে। সিদ্ধু ভারত সরকারের থেকে নীতি থেকে আলাদা হয়ে শান্তিদূত সেজে পাকিস্থানে উপস্থিত হয়েছিলেন এবং পাকিস্থানি জেনারেলের সাথে গলা মিলিয়ে ছিলেন।
এরপর তিনি পাকিস্থাকে খুব কাছের মনে করতেএ শুরু করেছিলেন। এখন বাজওয়ার এই ধমকিভরা বক্তব্যের পর সিদ্ধুর মুখ বন্ধ হয়ে গিয়েছে।