Press "Enter" to skip to content

ফতোয়া জারি করায় কট্টরপন্থী মৌলবীকে কড়া জবাব দিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মুক্তার আব্বাস এর সাহসী বোন।

মুসলিম মহিলাদের স্বাধীনতা ও অধিকার দেওয়ার জন্য মোদী সরকার তাদের সমস্থ জোর প্রয়োগ করে দিয়েছে। তবে শুধু সরকার নয়, মুসলিমদের কিছু সংগঠনও মুসলিম মহিলাদের তাদের প্রাপ্য অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য লড়াই চালাচ্ছে। মোদী সরকার তিন তালাকের উপর পদক্ষেপ নেওয়ার পর এবার নিকাহ হালালা ও মুসলিম পুরুষদের বহুবিবাহের উপর প্রতিবন্ধক লাগবে বলে জানা গিয়েছে। সরকারের এই পদক্ষেপে খুবই খুশি মুসলিম সমাজের সুচিন্তক ও মুসলিম নারীসমাজ।

মুসলিমদের কিছু সংগঠন মুসলিমদের নারীদের অধিকার দেয়ার জন্য কাজ করে কিন্তু কিছু কট্টরপন্থী মৌলবী এই সংগঠনের বিরুদ্ধে ফতোয়া জারি করার জন্য সবসময় প্রস্তুত থাকে। এইরকমই একটি সংগঠন বিজেপি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মুক্তার আব্বাস নাকভির বোন ফারহাদ নাকভি চালান। এই সগঠনের বিরুদ্ধে উত্তরপ্রদেশের বেরেলির এক কট্টরপন্থী মৌলবী ফতোয়া জারি করেদিয়েছেন। শুধু ফারহাদ নাকভি এর উপরেই নয় , নিদা খানের উপরেও ফতোয়া জারি করেছে মৌলবী। বলা হয়েছে এই দুটি মহিলাকে ইসলাম থেকে বহিষ্কার করা হবে। এই ফাতোয়া এর জবাবে ফারহাদ নাকভি বলেন, ‘আমি এই ফালতু ধমকিতে ভয় পায় না, আমি মুসলিম মহিলাদের ন্যায় এর জন্য লড়াই করেই যাবো।’ নিদা খানও এই ব্যাপারে মন্তব্য করতে গিয়ে বলেন ‘এই সব মৌলবীরা তখন কোথায় থাকে যখন তিন তালাক ও হালালা থেকে শোষিত হয়ে ন্যায় পাওয়ার জন্য ঠোকর খায়।’

নাকভি ও নিদা খানের এই কথা শুনে সম্ভবত ওই কট্টর মৌলবীর চিন্তায় পড়বে। আপনাদের জানিয়ে রাখি নাকভি ও নিদা আলাদা আলাদা সংগঠন চালায় যারা মুসলিম মহিলাদের উপর হওয়া অত্যাচারের বিরুদ্ধে ন্যায় এর জন্য লড়াই করে কিন্তু ইসলামের এই সগঠনগুলির জন্য নিজেকে ইসলামের ঠিকাদার মনে করা কিছু ব্যাক্তিকে সমস্যায় ফেলছে যে কারণে তারা ফতোয়া জারি করতে শুরু করে দিয়েছে।