Press "Enter" to skip to content

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বদলে দিলেন সরকারি কাজের ছবি! ৫ বছরে সম্পূর্ণ হলো ৭০০ টি প্রজেক্ট।

সরকারি কাজ মানেই দেরী, সরকারি কাজ মানে কখনো সম্পূর্ন হবে তার কোনো ঠিক নেই। সরকারি কাজের এই সংজ্ঞাকে সম্পূর্ণভাবে বদলে দেওয়ার কাজ করেছে নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) সরকার। বিগত ৫ বছরের মধ্যে মোদী সরকার কাজের গতি বৃদ্ধি করেছে। মোদী সরকার বিগত ৫ বছরের মধ্যে প্রায় ৭০০ টি প্রজেক্ট এমন করেছে যা ঠিক সময়ে সম্পূর্ণ হয়েছে অথবা সময়ের আগেই সম্পূর্ণ হয়েছে। এই প্রজেক্টগুলির মধ্যে কিছু গুরুত্বপূর্ণ যোজনাও সামিল রয়েছে। PMO এর সূত্র অনুযায়ী এক বিশেষ ঘটনা নরেন্দ্র মোদীকে সময়ের আগে প্রজেক্ট পূরণ করার বিষয়কে মিশন মোড়ে করার জন্য প্রেরণা দিয়েছিল।

আসলে নরেন্দ্র মোদী এক রেল প্রজেক্টের উপর বৈঠক করছিলেন সেই সময় আধিকারিকরা জানান যে, ওই প্রজেক্ট ১৯৭৫ সালে পাশ হয়েছিল কিন্তু এখনও কাজ হয়নি। এই ধরনের ঘটনা প্রধানমন্ত্রী মোদীর মনে প্রভাব ফেলেছিল এবং উনি সময়ের মধ্যে কাজ করার একটা মিশন শুরু করেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে এমন অনেক প্রজেক্ট সামনে এসেছিল যা ৪০ বছর ধরে পড়েছিল। বেশিরভাগ প্রজেক্ট রেল, পেট্রোলিয়াম ও সড়ক ব্যবস্থার সাথে জুড়ে ছিল।

সব প্রজেক্ট দেখার পর দেখা যায় যে, পুরানো প্রজেক্টগুলি সম্পূর্ণ করতে তখন যত অর্থ প্রয়োজন হতো এখন তার ১০০ গুণ বেশি অর্থের প্রয়োজন হবে। এরপর প্রধানমন্ত্রী বলেন ১০ বছরের পুরানো সমস্থ প্রজেক্টগুলির তালিকা তৈরি করা হোক। একই সাথে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী একটা সিস্টেম তৈরি করতে বলেন যার মাধ্যমে প্রজেক্ট গুলির কাজ শেষ হওয়ার ডেডলাইন ও কাজের গতি সম্পর্কে প্রত্যেক সপ্তাহে রিপোর্ট দেওয়া হবে। সমস্থ কিছুর রিপোর্ট অনলাইন করে দেওয়া PMO থেকে বিষয়গুলির উপর নজর রাখা সহজ হতো। অনেক প্রজেক্টের ক্ষেত্রে দেরি হওয়ায় সেই কাজের সাথে জুড়ে থাকা আধিকারিকদের সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। এছাড়াও প্রত্যেক মাসের শেষ সপ্তাহে হওয়া প্রগতি মিটিংয়ে সব রাজ্যের চিফ সেক্রেটারি ও অন্য বিভাগের বরিষ্ঠ আধিকারিকরা সামিল হতেন। সরকারের রিপোর্ট অনুযায়ী, ৫ বছরে ৭০০ এমন প্রজেক্ট ছিল যা ২০১৪ সালে শুরু হয়েছিল এবং ২০১৯ এর আগেই সম্পুর্ন করে দেওয়া হয়েছে।