Press "Enter" to skip to content

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে দেখতে বাংলাদেশ থেকে এক মুক্তিযোদ্ধা এলেন এরাজ্যে

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জনপ্রিয়তা যে দিন দিন বেড়েই চলেছে সেটা কারোর অজানা নেই। ওনার জনপ্রিয়তা শুধু দেশের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়, ওনার জনপ্রিয়তা বিদেশের মাটিতেও প্রচুর। তাই উনি বিদেশেও কোন অনুষ্ঠান করলে সেখানে লক্ষ লক্ষ মানুষের ভিড় জমে যায়। আর ওনাকে দেখতে বিমান বন্দরে হাজার হাজার মানুষ জমায়েত হন।

এবার একটু ভিন্ন রকমের জনপ্রিয়তা পেলেন উনি। এবার বিদেশ থেকে ওনাকে দেখার জন্য মানুষ এলেন এরাজ্যে। হ্যাঁ ঠিকই শুনেছেন বিদেশ থেকেই। তবে বেশি দূর না, আমাদের প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশ থেকে একজন এলেন ভারতে শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে দেখতে এবং ওনার ভাষণ শুনতে।

আজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে সামনা সামনি দেখতে এবং ওনার ভাষণ শুনতে বাংলাদেশ থেকে এক মুক্তিযোদ্ধা বনগাঁর ঠাকুরনগরে এসেছিলেন। ওনার নাম দিলীপ শিকদার। উনি বাংলাদেশের পিরোজপুরের বাসিন্দা। সোমবার রাতে উনি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জানতে পারেন যে, বনগাঁর ঠাকুর নগরে প্রধানমন্ত্রী আসছেন সভা করতে। আর সেই দেখে উনি দেরি না করে ভারতে আসার জন্য সমস্ত কাগজপত্র তৈরি করে নেন।

মুক্তিযোদ্ধা দিলীপ শিকদার বাংলাদেশেও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মত একজন সৎ, নিষ্ঠাবান ও দেশপ্রেমী নেতা চান। দিলীপ বাবু জানান, বাংলাদেশের হিন্দুরা অত্যাচারিত ওই দেশেও নরেন্দ্র মোদীর মত একজন নেতা চাই। এমনকি উনি বাংলাদেশের হিন্দুদের জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে পদক্ষেপ নেওয়ার ও আবেদন করেন।

দিলীপ বাবু আক্ষেপের সূরে বলেন, ‘ আমার বয়স যখন ২১ তখন আমি বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে জড়িত হয়েছিলাম। তখন ভেবেছিলাম দেশ স্বাধীন হলে আমরা সবাই একসাথে ভাই ভাই এর মত থাকব। কিন্তু সেটা আর হলনা। ওই দেশে আমাদের ভাই, বোনেরা প্রতিদিনই অত্যাচারের শিকার। এরজন্য বাংলাদেশেও একজন নরেন্দ্র মোদীর মত নির্ভিক নেতা চাই”

10 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.