Press "Enter" to skip to content

চেন্নাইয়ের এই ২ টাকার ডাক্তারের উপর মুগ্ধ প্রধানমন্ত্রী মোদী! দেশের আসল হিরোর উপাধি দিলেন প্রধানমন্ত্রী।

আর মাত্র কয়েকদিনের অপেক্ষা যারপর আগমন হবে ২০১৯ এর নতুন বছর। নতুন বছরের পা দেওয়ার প্রাক্কালে দেশবাসীকে বড়ো উপহার দিতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সূত্রের খবর জানুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহে খুলে যাবে হরিয়ানার ঝজ্জরের নির্মিত দেশের বৃহত্তম ক্যান্সার হাসপাতাল। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জেপি নাড্ডা জানিয়েছেন এই হাসপাতাল ভবিষ্যতে দেশের জনগণের ক্যানসার নিরাময়ে একটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে চলেছে। নিউ দিল্লীতে এক অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকাকালীন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জেপি নাড্ডা বলেন ক্যানসার নিরাময়ের জন্য হরিয়ানায় যে হাসপাতাল করা হচ্ছে তা দেশের স্বাস্থ্যক্ষেত্রে বড়ো পরিবর্তন আনবে।

পাঞ্জাব, রাজস্থান ও দিল্লীর ক্যানসার রোগীরা এতদিন অবধি নিজেদের রোগ নিরাময়ে জন্য মুম্বাই রওনা দিত। কিন্তু এবার মোদী সরকারের পদক্ষেপের দরুন উত্তর ভারতের মানুষজন হরিয়ানায় নিজেদের রোগ নিয়াময়ের একটা বড়ো সুযোগ পেতে চলেছে। হরিয়ানায় যে হাসপাতাল তৈরি হয়েছে সেখানে ৭০০ টি বেড রয়েছে বলে সূত্রের খবর। ক্যানসারের চিকিৎসার জন্য ব্যবহৃত রেডিয়শন, অস্ত্রপাচার সহ সমস্থ রকমের সুবিধবেই হাসপাতাল উপলব্ধ রয়েছে।

জানিয়ে রাখি, দিল্লীর এইমস হাসপাতালকে এই ক্যান্সার হাসপাতালের সাথে যুক্ত করা হয়েছে যাতে এইমস থেকে রোগীদের এখানে রেফার করা সম্ভব হয়। এইমসে প্রতিদিন প্রায় ১৩০০ রোগী ভর্তি হন, এখন এই হাসপাতালের সাথে লিংক করানোই এইমসের ভার কিছুটা কম হবে।

এই হাসপাতাল তৈরির দাবি অনেক দিন থেকে উঠে আসছে, কিন্তু UPA আমলে হাসপাতাল তৈরির নামে শুধু লুটপাট চলেছে। কিন্তু নরেন্দ্র মোদী ক্ষমতায় আসার পর থেকে ক্যানসার হাসপাতাল তৈরির কাজ ব্যাপক হারে শুরু হয়ে যায়। এখন হাসপাতালের নির্মাণ কাজ প্রায় সম্পূর্ণ হয়েছে। এমনকি বহিরাগত চিকিৎসাও শুরু হয়েছে গত মাসে। জেপি নাড্ডা জানিয়েছেন, জানুয়ারি মাসে এই হাসপাতালের উদ্বোধন করা হবে এবং দেশবাসীকে উৎসর্গ করা হবে।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.