Press "Enter" to skip to content

মোদী সরকারের মাস্টারপ্ল্যান: দেশের জন্য একটা কাজ করলে আপনার নামে দেওয়া হবে রাস্তা, ট্রেন ও হাসপাতালের নাম।

বৃহস্পতিবার সংসদে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন () ২০১৮-১৯ এর আর্থিক সমীক্ষা পেশ করেন। সেই সার্ভের ভিত্তিতে মোদী সরকার দেশের ট্যাক্স দাতাদের উৎসাহ বৃদ্ধি করতে বেশকিছু দুর্দান্ত পদক্ষেপ নিতে চলেছে। আর্থিক সমীক্ষায় দেশের সৎ ট্যাক্সদাতাদের  সম্মানিত করার জন্য কিছু প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে। দেশের মানুষের মধ্যে যাতে বেশি পরিমাণে ট্যাক্স মিটিয়ে দেওয়ার অভ্যাসকে উৎসাহিত করা যায় তার জন্য কিছু পদক্ষেপ নেওয়ার সুপারিশ ট্যাক্স সার্ভেতে দেওয়া হয়েছে।
আর্থিক জরিপে দেওয়া প্রস্তাবনা অনুযায়ী ‘সাধারণত দেখা গেছে নাগরিক নিজের সোশ্যাল স্টেটাসকে দেখানোর জন্য অনেক দামি জিনিসের কেনা-বেচা করে। এখন এর উপর ভিত্তি করেই সব শহরের ১০জন অধিক ট্যাক্স দেওয়াকে ব্যাক্তিকে সম্মানিত করা হতে পারে। এর জন্য কিছু বিশেষ প্রস্তাবনাও দেওয়া হয়েছে যেমনঃ

সার্ভেতে দেওয়া কিছু বিশেষ প্রস্তাবনা:

১) সৎভাবে ট্যাক্স দেওয়া মানুষদের এয়ারপোর্টে বোর্ডিংয়ের সময় কিছু বিশেষ সুবিধা দেওয়া হতে পারে। রাস্তায় ফার্স্ট লেনে চলার সুবিধা বা রোড এবং টোল বুথে বিশেষ ছাড় আর শুধু তাই নয় মন্ত্ৰীদের মতো ইমিগ্রেসন কাউন্টারে বিশেষ লাইনে দাঁড়ানোর ছাড়ের প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে।

২) জরিপে প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে যে এক দশকে সর্বাধিক ট্যাক্স দেওয়া করদাতাদের নামে কোনো গুরুত্বপূর্ণ বিল্ডিং, স্মারক, রাস্তা, ট্রেন, হাসপাতাল, ইউনিভার্সিটি বা এয়ারপোর্টের নামকরণ করা যেতে পারে।

৩) এইভাবে সৎ ও বেশি মাত্রায় কর দেওয়া লোকেদের জন্য বিশেষ ক্লাব বানানোর প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে। আর্থিক জরিপে প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে যে এই ধরণের ক্লাবের সদস্যতা কিছু বিশেষ লোকদেরই দেওয়া হবে। এই ধরণের পদক্ষেপের ফলে সমাজে এই সংকেত যাবে যে সততার সঙ্গে ট্যাক্স দেওয়া লোকেদের সমাজে খুব সম্মান করা হয়।

জানিয়ে দি, এর আগেও এমন এসছে যে সরকার সততার সঙ্গে করদান করাদের জন্য কিছু বিশেষ পদক্ষেপ ওঠাতে পারে। এইজন্য এরকম করদাতাদের ইনসেনটিভ প্রোগ্রামের মাধ্যমে কিছু বিশেষ রিওয়ার্ড দেওয়া হয়। জানিয়ে দি, এর জন্য গত বছর সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ডিরেক্টর ট্যাক্স  (CBDT) এর অধীনে কমিটিও গঠন করা হয়েছিল।