Press "Enter" to skip to content

বড়ো সিধান্ত বিজেপি শাসিত রাজ্যের! SC/ST এক্টের উপর দুর্দান্ত সিধান্ত শিবরাজ সিং চৌহানের।

শাসিত মধ্যপ্রদেশ থেকে একটা বড়ো খবর সামনে আসছে, যার জন্য রাজনৈতিক মহলে হৈচৈ শুরু হয়েছে। মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী একটা বড় মন্তব্য করেছেন যা শোনার পর বিরোধীদের ঘুম উড়ে গেছে। মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ চৌহান ঘোষণা করেছেন, তার রাজ্যে কোনো ব্যক্তিকে না যাচাই করে SC/ST এক্টের মধ্যে গেপ্তার করা হইবে না। তিনি বলেন গ্রেপ্তারি শুধুমাত্র যাচাই ও তদন্ত করার পরেই হবে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, যদি কোনো ব্যক্তির উপর SC/ST এক্টে মামলা করা হয় তাহলে প্রথমে দেখা হবে যে অভিযোগটি সত্য কিনা তারপরেই গেপ্তার হবে।

জানিয়ে দি , এই SC/ST এক্ট কংগ্রেস 1989 সালে কংগ্রেস দেশে লাগু করা হয়েছিল। এই এক্টকে খুবই ব্যাপক হারে দুর্ব্যবহার করা হয়। এই এক্টের মাধ্যমে দায়ের হওয়া বেশিরভাগ মামলা জালি ও মিথ্যা বেরিয়ে আসে। SC/ST এক্টের সবথেকে বড় দুটি সমস্যা রয়েছে।

সমস্যা হলো, প্রথমত বিনা তদন্তেই গেপ্তার করা হয়, দ্বিতীয়ত যদি পরে মমাল মিথ্যা বেরোয় তাহলে মামলাকারীর বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নেওয়ার নিয়ম নেই। এখন শিবরাজ ঘোষণা করেছেন যে মধ্যপ্রদেশে বিনা তদন্তে কোনো গ্রেপ্তারি হবে না, কমপক্ষে মামলা নিয়ে তদন্ত করার পরেই গেপ্তার করা হবে, যদি দায়ের হওয়া মামলা মিথ্যা বেরিয়ে আসে তাহলে কোনো গ্রেপ্তারি করা হবে না।

বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলি যেভাবে নিজের নিজের রাজ্যের শাসনে, কানুনে পরিবর্তন আনতে শুরু করেছে তাতে আগামী দিনে দেশে একটা বড় পরিবর্তন দেখা মিলতে পারে। জানিয়ে দি উত্তরখন্ড রাজ্যের সরকার তাদের রাজ্যে গো মাতাকে রাষ্ট্রমাতার স্বীকৃতি দিয়ে ইতিহাস তৈরী করে ফেলেছে। অন্যদিকে অসমের সরকার NRC এনে বাকি রাজ্যগুলিকে এই ব্যাপারে উৎসাহিত করে দিয়েছে। একই সাথে অসমে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ আইন নে ফেলেছে বিজেপি রাজ্য সরকার। যোগী সরকার ধর্মীয় কট্টরপন্থার বিরুদ্ধে লাগাতার কাজ করে চলেছে।