Press "Enter" to skip to content

এবার পাকিস্তানী নির্বাচনেও মোদী মোদী ! কিন্তু, কেন জানলে চমকে যাবেন ..?

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী প্রধানমন্ত্রী পদে আসার পড়ে থেকে দেশের আমূল পরিবর্তন চোখে পড়তে শুরু করেছে। শুধু দেশের ভেতরে নয় আন্তর্জাতিক মহলেও ভারত নিজের শক্তি বৃদ্ধি করতে সক্ষম হয়েছে। আপনাদের জানিয়ে রাখি মোদী সরকার বর্তমানে বিশ্বের সবথেকে ভরসাযোগ্য সরকারের তালিকায় প্রথম স্থান অধিকার করেছে। মোদী সরকার আসার পর থেকে দুনীতির উপর লাগাম লাগানোর জন্য এমন এমন পদক্ষেপ নিয়েছে যার সুনাম গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। আর এই মোদী ঝড়ের প্রভাব পড়েছে কট্টরপন্থী ইসলামিক দেশ পাকিস্তানের উপরেও।

আসলে ২৫ শে জুলাই পাকিস্থানে নির্বাচন আর সেই নির্বাচনে দলগুলির কাছে সময় আর নেই বলেই চলে তাই শুরু হয়েছে জোরদার প্রচার। কিন্তু জানলে অবাক হবেন পাকিস্থানের দলগুলি নির্বাচনে লড়ার জন্য বিষয়বস্তু হিসেবে মোদীজিকে বেছে নিয়েছেন। হ্যাঁ ঠিকই পড়েছেন, পাকিস্তানের দলগুলি পিছিয়ে পড়া পাকিস্তানের উন্নতিকরণের ইস্যু ভুলে গিয়ে মোদী মোদী রবে মেতে উঠেছে। আসলে সমস্থ দলগুলি মোদীর নামে গালাগালি করে বা মোদীকে শিক্ষা দেওয়া হবে এই আশ্বাস দিয়ে ভোটব্যাঙ্ক লুটার জন্য উঠেপড়ে লেগেছে। কেউ কেউ আবার মোদীজির মতো করে কাজ করবে বলে আশ্বাস দিয়ে ভোট ব্যাঙ্ক তৈরী করেছে। সবথেকে বড় ব্যাপার মোদী নাম এখন পাকিস্তানে এমন হয়ে উঠেছে যা শুনলেই অশিক্ষিত কট্টরপন্থী পাকিস্তানিরা লাফাতে শুরু করছে আর সেই জিনিসের লাভ উঠাচ্ছে পাকিস্থানের দলগুলি।

এমনকি পাকিস্থানে প্রধান দুটি দল একটি প্রাক্তন ক্রিকেটার ইমরান খানের দল এবং দ্বিতীয় হাফিজ শাহিদ চালিত দল(হাফিজের নিজের দলটি বাতিল করেছে পাকিস্তান আদালত) দুটিই মোদীর নামে গালাগালি করে ভোটব্যাঙ্ক করতে শুরু করে দিয়েছে। যদিও যতদিন পাকিস্থানের প্রধানমন্ত্রী পদে নওয়াজ শরীফ ছিল ততদিন ইমরান খান মোদীজির সৎ ব্যাক্তিত্বের ও কাজের গুনগান গাইতেন কিন্তু এখন নওয়াজ শরীফ ক্ষমতা থেকে সরে যাওয়ার পর আতঙ্কবাদী হাফিজ শহীদের সাথে পাল্লা দিয়ে উঠতে মোদীর নামে গালাগালি দিতে শুরু করেছে। আপনাদের জানিয়ে রাখি কয়েকটি বড় সার্ভে সংস্থা জানিয়েছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বিশ্বের তৃতীয় সবথেকে প্রভাবশালী ব্যাক্তি। আর সেইভাবে যদি পাকিস্তানের জনগণ প্রধানমন্ত্রী না নির্বাচন করে তাহলে হয়তো পাকিস্থানকে ভুগতে হতে পারে।দেখুন ভিডিও-