Press "Enter" to skip to content

চলন্ত ট্রেন থেকে লুটেছিল ৫.৭৮ কোটি টাকা! নোটবন্দি করলো এমন বজ্রপাত যে ২ কোটি টাকা নষ্ট করতে বাধ্য হল !

থেকে দেশ কতটা উপকৃত হয়েছে সেটার বিতর্ক চলতেই থাকবে। কিন্তু নোটবন্দির সাথে জুড়ে থাকা একটা বড়ো আকর্ষণীয় ঘটনা সামনে এসেছে যা সোশ্যাল মিডিয়ায় চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে। THE HINDU এর একটা রিপোর্ট অনুযায়ী ২০১৬ সালে ৫ লুটেরা একটা ট্রেন থেকে লুট করেছিল কিন্তু তারা সেই টাকা ব্যাবহার করবে তার আগেই দেশে নোটবন্দি লাগু হয়ে গেছিল। লুটেরাদের থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী ২ তারা এমনি জ্বালিয়ে দিয়েছিল কারণ সেই টাকা তারা ব্যাবহার করতেও পারতো না এবং ব্যাংকে জমাও করা যেত না। THE HINDU এর রিপোর্ট অনুযায়ী ঘটনাটি তামিলনাড়ু রাজ্যের। এই ঘটনায় ৫ জন লুটেরাকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়ার পর জেলে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছিল।

আসলে ২০১৬ সালে ৩৪২ কোটি টাকা ট্রেনের মাধ্যমে ইন্ডিয়ান অভার্সিজ ব্যাংক থেকে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক চেন্নাই অফিসে পাঠানো হচ্ছিল। এইচ মোহর সিং, রুশি পারদি, মোহেশ পারদি, কালিয়া ও বিলটিয়া নামক ডাকাতেরা এর মধ্যে থেকে ৫.৭৮ কোটি টাকা লুটে নিয়েছিল। পুলিশ জানিয়েছিল এই ডাকাত দলের আসল মাথা ছিল মধ্যপ্রদেশের মোহর সিং ছিল। এইচ মোহর সিং এর সাথে সব ডাকাতেরা তামিলনাড়ু এসেছিল।

এই ৫ জন ডাকাত জানিয়েছে তারা বহুদিন ধরে পরিকল্পনা করার পর এই কাজ সম্পন্ন করেছিল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী মোদী ৮ নভেম্বর ২০১৬ তে নোটবন্দির ঘোষণা করে দেন যার মাধ্যমে ৫০০ এর নোট ও ১০০০ এর নোট ব্যান করে দেওয়া হয়। ২ বছর ধরে তদন্ত চালানোর পর পুলিশ ২০১৮ সালে এই গ্যাংকে ধরতে সক্ষম হয়েছিল যার পর পুরো ঘটনার পর্দাফাঁস হয়। ডাকাতি বিরুদাচালাম ও চিন্নাসাল্লাম স্টেশন এর মধ্যে স্থানে করা হয়েছিল।

এই ডাকাতির জন্য মোহর সিং তার ৩ সাথীকে নিয়ে পার্সেল ভ্যানের ছাদের উপর উঠেছিল। ডাকাতির আগে কয়েকদিন ধরে ৩ জন ডাকাত ট্রেনে লাগাতার যাতায়াত করতো ট্রেনের সমস্থকিছু টাইম টেবিল জানার জন্য। কোচের ছাদে উঠার পর সেখানে এই ডাকাতেরা ছিদ্র করে দিয়েছিল এবং সেখান দিয়ে কোচে মধ্যে ঢুকে পড়েছিল। এরপর কোচের মধ্যে থাকা কাঠের বাক্স ভেঙে টাকা একটা নির্দিষ্ট জায়গায় ছুড়ে দিয়েছিল যেখানে তাদের আরেক সাথী আগে থেকেই উপস্থিত ছিল। যে ৫.৭৮ কোটি টাকা এই ডাকাতেরা লুটেছিল তার মধ্যে ১.৭৬ কোটি টাকার জমি কিনে নিয়েছিল এরা এবং বাকি টাকা নিজেদের মধ্যে ভাগ করেছিল। কিন্তু এরপরেই প্রধানমন্ত্রী মোদী হটাৎ একদিন নোটবন্দি লাগু করে দেন যারফলে ডাকাতেরা মতো ২ কোটি টাকা পুড়িয়ে দিয়েছিল।

প্রিয় পাঠকদের কাছে প্রশ্নঃ এই ঘটনার উপর আপনাদের প্রতিক্রিয়া জানান।