Press "Enter" to skip to content

আরো খারাপ দিন এলো পাকিস্থানের!আমেরিকা ছিনিয়ে নিতে পারে পাকিস্থানকে দেওয়া ৪৪ টি f-16 জেট!

মোদী সরকার ও  ভারতীয় সেনা পাকিস্থানকে ঐতিহাসিক শিক্ষা দেওয়ার জন্য সিধান্ত নিয়েছে। পাকিস্থানের ওয়াটার ট্রাফিক, এয়ার ট্রাফিক সমস্থকিছু বন্ধ হয়ে গেছে। মুম্বাই যেভাবে ভারতের আর্থিক রাজধানী সেই একইভাবে করাচি পাকিস্থানের আর্থিক রাজধানী। ভারতের থেকে ভয়ভীতি হয়ে করাচি প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে। পাকিস্থানের মধ্যে প্যানিক সৃষ্টি হয়েছে যে ভারত আবার যেকোনো সময় স্ট্রাইক করে দিতে পারে। ভারতের সরকার আন্তর্জাতিক চাপ ও সৈন্য শক্তি দেখিয়ে পাকিস্থানের শোচনীয় অবস্থা করেছে। অবস্থা এমন যে পরমাণু শক্তির ভয় দেখানো পাকিস্থান এখন শান্তি বার্তা করে আলোচনায় বসার জন্য ভারতকে অনুরোধ করছে।

পাকিস্থান ২৭ তারিক একটা বড় ভুল করে দিয়েছে যার জন্য এবার পাকিস্থানের মধ্যে প্যানিক সৃষ্টি হয়েছে। ২৭ তারিখ পাকিস্থান ভারতের সীমায় মোট ৩ টি f-16 ফাইটার জেট পাঠিয়েছিল। এই ফাইটার জেটে বোমা ছিল যারা দ্বারা পাকিস্থান ভারতকে ক্ষতিগ্রস্ত করার পরিকল্পনা করেছিল। এরপর ২ টি ভারতীয় MIG-21 পাকিস্থানের তিনটি f-16 কে কাউন্টার করার জন্য উড়ান দেয়। ভারতের MIG-21 এর ফাইয়ারিং এ দুটি f-16 পলায়ন করে এবং ১ টা f-16 ভেঙে পড়ে যার ভাঙা অংশ আজ সকালে পাকিস্থানের সেনা POK থেকে উঠিয়ে নিয়ে গেছে।

এবার বিষয়টি হলো এই যে- ঘটনার পর পাকিস্থান নিজের f-16 ব্যাবহার করার ঘটনা অস্বীকার করেছিল। কারণ এই f-16 জেট আমেরিকা পাকিস্থানকে প্রদান করেছিল এবং প্রদানের সময় একটা চুক্তি রেখেছিল। চুক্তি ছিল, পাকিস্থান এটা শুধুমাত্র আতঙ্কবাদী ক্যাম্পের উপর ব্যাবহার করতে পারবে, কোনো দেশের বিরুদ্ধে এই জেট ব্যাবহার করা যাবে না। এই কারণে প্রথমে পাকিস্থানের এটা মানতে রাজি হয়নি যে তারা ভারতে আক্রমন করার জন্য f-16 ব্যাবহার করেছে। কিন্তু আজ f-16 এর ভাঙা অংশ থেকে সব সত্য সামনে চলে এসেছে। আমেরিকা সহ পুরো বিশ্ব পাকিস্থানের চালাকি ধরে ফেলেছে।

এবার ভারত আধিকারিকভাবে এই মামলাকে আমেরিকা সামনে তুলবে। একইসাথে আমেরিকা ও ভারতের মধ্যে যে চুক্তি হয়েছিল তার পর্যালোচনা করতে বলা হবে। এবার মোদী কূটনৈতিক চাপ প্রয়োগ করবে এবং পাকিস্থানকে দেওয়া সমস্থ f-16 জেটকে আমেরিকা ফেরত নেওয়ার উপর কাজ শুরু করবে। আমেরিকা পাকিস্থানকে ৪৫ টি f-16 দিয়েছিল যার মধ্যে ১ টা ভারত উড়িয়ে দিয়েছে। এখন পাকিস্থানের কাছে ৪৪ টি f-16 রয়েছে যা আমেরিকা ফেরত নেবে।

11 Comments

  1. What’s up, this weekend is fastidious for me, since this point in time i am reading this wonderful informative piece of writing
    here at my home.

  2. Wow, that’s what I was exploring for, what a data! present here at this weblog, thanks admin of this web site.

Leave a Reply

Your email address will not be published.