Press "Enter" to skip to content

আরও ভিখারি হল পাকিস্তান! ফের দাম কমল টাকার, পেট্রোল-ডিজেল কেনার পয়সা নেই ওদের কাছে

ভারতের সাথে যুদ্ধ করার প্রস্তুতি নেওয়া পাকিস্তান আরও কাঙাল হল। পাকিস্তানি টাকা বুধবার ডলারের তুলনায় আরও নিচু স্তরে পৌঁছে গেলো। শুধু তাই নয়, এবার পাকিস্তানে পেট্রোল, ডিজেল কেনার পয়সা নেই। পাকিস্তানে বুধবার ডলারের তুলনায় টাকার দাম ১৩৯.২৫ টাকা হয়েছিল। কাঁচা তেলের রোজ ক্রমবর্ধমান দামের ফলে পাকিস্তানকে এখন বেশি করে বিদেশী মুদ্রা খরচ করতে হবে। আর এর সাথেও সোনার দাম ও বেড়ে গেছে পাকিস্তানে। পাকিস্তানে বুধবার সোনার ৭০ হাজার টাকা প্রতি গ্রাম বিক্রি হয়েছে।
যুদ্ধের আশঙ্কা তৈরি হওয়ার কারণে বিদেশী বিনিয়োগকারীরা তাঁদের পয়সা তুলে নিচ্ছে। আর এর জন্য পাকিস্তানের বাজারে ডলারের চাহিদা বেড়ে গেছে। আর এর ফলেই রোজই পাকিস্তানের টাকার দাম কমছে।
পাকিস্তানের বিদেশী মুদ্রার ভাণ্ডার লাগাতার কমছে। দেশে পেট্রোল, ডিজেলের চাহিদা বাড়ছে, আর সেই চাহিদাকে পূরণ করার জন্য কাঁচা তেল ডলার দিয়ে কিনতে হচ্ছে পাকিস্তানকে। এখন কাঁচা তেলের দাম ৬৫ ডলার প্রতি ব্যারেল। আর এরকমই দশ দিন চললে পাকিস্তানের ১৪২ টাকার তুলনায় ১ ডলার পাওয়া যাবে। আর এর ফলে পাকিস্তানের অবস্থা আরও শোচনীয় হবে।
পাকিস্তানে বিনিয়োগকারীরা বিগত ৯ দিনে ৯,৪১,২৯৪ ডলারের শেয়ার বেচে দিয়েছে। এর ফলে ব্যবসায়ীরা কিছু সময়ের জন্য বিনিময় ব্যবসা বন্ধ করে দেয়।

7 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.