Press "Enter" to skip to content

ভারতের চারিদিক থেকে চাপের পর মাথা নোয়াচ্ছে পাকিস্তান! চীনের কাছে মাসুদ আজাহারকে না বাঁচানোর আর্জি জানিয়েছে তাঁরা

তাঁদের সবথেকে কাছের বন্ধু ের কাছে আবেদন করে বলে, তাঁরা যেন সংযুক্ত রাষ্ট্রের সুরক্ষা পরিষদে জইশ এর প্রধান জঙ্গি মাসুদ আজাহারকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি ঘোষণা করার টেকনিক্যালি গাঁট ঢিলে করে। পাকিস্তানের এক বর্ষীয়ান ডিপ্লোম্যাট নাম না প্রকাশ করার শর্তে জানায়, এই পদক্ষেপের পর সীমান্তে যেই উত্তেজনা ছড়িয়েছে সেটা থেকে স্বস্তি মিলবে আর -পাকিস্তানের মধ্যে কথাবার্তা এগোবে।

হিন্দুস্তান টাইমস এর একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, আমেরিকাও মামলায় টেকনিক্যালি বাঁধা সৃষ্টি করার জন্য চীনের কাছে জবাবদিহি চেয়েছে। আর এরপরে এই মামলা নিয়ে অন্য বিকল্পের কথা ভাবা হচ্ছে।

এবছরের ফেব্রুয়ারি মাসে জম্মু কাশ্মীরে পুলওয়ামায় সিআরপিএফ এর কনভয়তে আত্মঘাতী হামলার দায় মাসুদ আজাহারের জঙ্গি সংগঠন জইশ-এ-মহম্মদ নিয়েছিল। ওই হামলায় সিআরপিএফ এর ৪০ এর উপরে জওয়ান শহীদ হয়েছিলেন।

আমেরিকার নিউইউর্কে থাকা ভারতীয় আর আমেরিকার ডিপ্লোম্যাটস এর অনুসারে, চীন আমেরিকার আধিকারিকদের পাকিস্তানের প্রাথমিকতা নিয়ে অবগত করিয়েছে। কিন্তু ট্রাম্প প্রশাসনকে আশ্বাস করতে সক্ষম হয়নি চীন। আমেরিকা চীনকে জানিয়েছে, ইউএন এ আন্তর্জাতিক জঙ্গি তালিকায় মাসুদ আজাহারের নাম যুক্ত করা ভারত-পাকিস্তানের দিপাক্ষিয় কথাবার্তা কোন রুপেই জড়িত না।

ইউএন-এ মাসুদ আজাহারকে ব্যান করা নিয়ে চীন চতুর্থ বার তাঁদের ভিটো পাওয়ার ব্যাবহার করে নাক গলিয়েছে। এরপর সংযুক্ত রাষ্ট্রের সুরক্ষা পরিষদ তিনটি প্রধান সদস্যের কাছে দুই সপ্তাহের মধ্যে বিশেষ কারণ জানতে চেয়েছে। এই সপ্তাহেই সেই সময়সীমা শেষ হতে চলেছে।

এবার চারিদিক থেকে চাপে পড়ে মাসুদ আজাহারকে নিয়ে ইসলামাবাদের চিন্তাধারায় বদল দেখা যাচ্ছে। পাকিস্তানের সামরিক প্রশাসন ২৭ ফেব্রুয়ারি ভারতকে আশ্বস্ত করেছিল যে, তাঁরা নিজেরাই চীনের কাছে আজাহরকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি ঘোষণা করার জন্য আবেদন করবে। যদি সেনার মুখপাত্র বলেছিল, আজাহার মাসুদ আর জইশ এ মোহম্মদ না পাকিস্তানে আছে, না তাঁরা সক্রিয়!

পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের ভবালপুর রেলওয়ে লিঙ্ক রোডে উসমান-এ-আলি মাদ্রাসা কে নিজেদের হেড কোয়ার্টার বানিয়ে রেখেছে মাসুদ আজাহার। বর্তমানে জঙ্গি মাসুদ অনেক রোগে আক্রান্ত।

9 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.