Press "Enter" to skip to content

ইন্দিরা গান্ধীর মৃত্যুর ভবিষ্যতবাণী করা জ্যোতিষীচার্য করলেন প্রধানমন্ত্রী মোদীর নিয়ে বড়ো তথ্য ফাঁস।

২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনের জন্য সমস্থ দল নিজেদের কোমোর বেঁধে নিয়েছে। সমস্থ দল নিজেদের প্রচারের গতি দ্রুত করে দিয়েছে। এটা সম্পর্কে সকলেই অবগত যে ২০১৯ নির্বাচনের জন্য আর বেশি সময় হাতে নেই। এই জন্যেই সকলে নিজের নিজের সর্বচেষ্টা লাগিয়ে দিয়েছে। বিজেপি নিজের বিকাশের কাজ এবার দেশবাসীকে স্মরণ করাচ্ছে অন্যদিকে কংগ্রেস পার্টি নিজেদের হিন্দু প্রমান করার চেষ্টায় লেগে পড়েছে। একই সাথে কংগ্রেস বাকি দলগুলির সাথে জোটবন্ধন করতে শুরু করেছে। আসলে নির্বাচনে সমস্থ দল প্রস্তুতি নিলেও আসল লড়াই বিজেপি ও কংগ্রেসের মধ্যেই।আজ এমন একজন যোতিষীর ভবিষ্যতেবাণী সম্পর্কে জানাবো যা আপনাকে অবাক করবে। এইজ্যোতিষীচার্য এর নাম ।জ্যোতিষীচার্য এর আগের সমস্থ ভবিষ্যতবাণী সঠিক হয়েছে।

আরও পরুনঃ মোদীর কূটনীতির কাছে হার মানলো আমেরিকা! ইরান থেকে ভারতে তেল আমদানির উপর ছাড় পাবে ভারত সরকার।

এই জ্যোতিষীচার্য ও সঞ্জয় গান্ধীর মৃত্যুর ভবিষ্যতবাণী করেছিলেন। উনি সম্প্রতি ভারতের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সম্পর্কে এক বড় তথ্য প্রকাশ করেছেন। প্রথমত আপনাদের জানিয়ে দি, উনি ইন্দ্রিরা ও সঞ্জয় এর মৃত্যু নিয়ে সঠিক ভবিষ্যতবাণী করেছিলেন যার জন্য উনাকে CBI এর তদন্তের শিকার হতে হয়েছিল। রামজন্মভূমি বিতর্ক তেও জ্যোতিষীচার্য হরিদয়াল মিশ্র বেশ ভালোভাবেই জড়িত।

উনি প্রধানমন্ত্রী মোদীকে নিয়ে বলেছেন যে- মোদী অজেয় এবং লম্বা সময় ধরে উনি দেশের সেবা করতে পারবেন। একই সাথে জ্যোতিষীচার্য রাহুল গান্ধীকে নিয়ে বলেছেন, রাহুলের সময় ভালো নয়, রাহুলের পূর্বপুরুষ কুকর্ম করার জন্য উনার উপর থেকে খারাপ প্রভাব সরতে চাইছে না। ইন্দ্রিরা, সঞ্জয় এর মৃত্যু ছাড়াও উনি বেশ কিছু বড়ো বড়ো রাজনৈতিক ভবিষ্যতবাণী করেছিলেন।

এই কারণে উনি সাংবাদিকদের কাছে খুবই প্রিয় একজন ব্যক্তি। যে কোনো অভিজ্ঞ সাংবাদিক হরিদয়াল মিশ্র এর সাথে সাক্ষাত পেলে ইন্টারভিউ না নিয়ে ছাড়েন না। মোদী সম্পর্কে উনার এই ভবিষ্যতবাণী আসার পর থেকে এটা মনে করা হচ্ছে যে নরেন্দ্র মোদী ২০২৯ পর্যন্তও ভারতের প্রধানমন্ত্রী পদে থাকতে পারেন। যদিও এই বিষয়টি আগামী দিনে বোঝা যাবে কারণ বিজেপি যে কোনো পদের জন্য বয়স ভিত্তিকেও অনেক বিচার করে থাকে।