Press "Enter" to skip to content

অজিত দোভালের মুভমেন্ট নিয়ে পাকিস্থানের আর্মির মধ্যে প্যানিক!পাক সেনাদের ছুটি বাতিল, হাই এলার্ট জারি- ভয়ভীতি পুরো পাকিস্থান।

ভারত সরকার পাকিস্থানে নিযুক্ত রাজদূতকে দেশে ডেকে নিয়েছে। কিন্তু দিল্লীতে পাকিস্থানের যে দূতাবাস নিযুক্ত রয়েছে তার সাথে পাকিস্থান সরকার লাগাতার সম্পর্কে রয়েছে এবং হাই এলার্ট জারি রেখেছে। পাকিস্থানের সেনাদের সমস্ত ছুটি বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। ভারতের ভয়ে পাকিস্থানে হটাৎ হটাৎ প্যানিক সৃষ্টি হচ্ছে এবং কট্টরপন্থী পাকিস্থানিরা ভয়ভীতি হয়ে জীবন কাটাচ্ছে। আসলে ভারত পাকিস্থানের উপর যে কোনো সময় বড় স্ট্রাইক করতে পারে এই নিয়ে পাকিস্থানে হাই এলার্ট জারি রয়েছে আর এতেই ভয়ভীতি হয়েছে পাকিস্থানিরা।

গতকাল পাকিস্থানের শিয়ালকোট এলাকায় হটাৎ হাহাকার পরিস্থিতি হয়েছিল। গতকাল শিয়ালকোটে পাকিস্থানেরই এক ফাইটার জেট উড়ানের প্যাক্টিস করছিল। ফাইটার জেটটি পাকিস্থানের এক অব্যাবহৃত বাড়ির উপর হামলা করে যাতে এলাকার লোকের মধ্যে প্যানিক সৃষ্টি হয়। এলাকায় মানুষ ভেবে নেয় যে ভারত দুটি বোমা ফেলে দিয়েছে। মুহূর্তের মধ্যে পাকিস্থানের সোশ্যাল গুজব রটে যায় যে ভারত পাকিস্থানের উপর বোমা ফেলে আক্রমন শুরু করে দিয়েছে।

প্যানিক এতটাই ভয়াবহ হয় যে বহু মানুষ নিজের বাড়ি ছেড়ে এসে বাইরে ফাঁকা মাঠে দাঁড়িয়ে পড়ে। ঘটনা সম্পর্কে আগাম খবর না থাকায় কিছু লোকাল মিডিয়াও এই ইস্যুতে পাকিস্থানের জনগণকে ভয়ভীতি করে। পাকিস্থান তাদের সেনার ছুটি বাতিল করার সাথে সাথে ভারত-পাক সীমান্তে হাই এলার্ট জারি রেখেছে। পাকিস্থান তাদের সেনাকে নির্দেশ দিয়েছে যে তারা না বড় জোট সংখ্যায় মুভমেন্ট না করে, কারণ ভারতের সেনার নজর তাদের উপর রয়েছে।

একইসাথে পাকিস্থানের আতঙ্কবাদী ক্যাম্প খালি করে দেওয়া হয়েছে। POK তে আতঙ্কবাদীদের সমস্থ লঞ্চপ্যাড এখন খালি হয়ে রয়েছে। ভারতীয় সুরক্ষা উপদেষ্টা অজিত দোভাল কাল আমেরিকা ও ব্রিটেনের NS এর সাথে কথা বলেছেন। পাকিস্থানের মিডিয়া ২৪ ঘন্টা দোভালের উপর নজর রেখেছে কারণ পাকিস্থান ভারতের দিক থেকে বড় কার্যবাহীর জন্য ভয় পাচ্ছে। পাকিস্থানে প্যানিক এতটাই চরমে পৌঁছেছে যে পাকিস্থানের বহু উচ্চবিত্তরা দেশ ছাড়ার জন্যেও প্রস্তুতি নিয়েছে।পাকিস্থানের মিডিয়া দাবি যে ভারতের আর্থিক অবস্থা খুব মজবুত রয়েছে তাই যে কোনো সময় ভারত আক্রমন করতে পারে। পাক মিডিয়া এই ইস্যুতে নানা খবর চালিয়ে পাকিস্থানের জনতাকে আরো ভয়ভীতি করে তুলেছে। যার জন্য পাকিস্তানিদের রাতের ঘুম পর্যন্ত উড়ে গেছে।

8 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.