Press "Enter" to skip to content

ভিডিও বানিয়ে হিন্দুদের ধমকি দিচ্ছিল দুই কট্টরপন্থী!লোকজন মেরে পাল্টে দিল মুখের আকার আকৃতি।

তাবরেজ আনসারীকে নিয়ে কট্টরপন্থীরা দেশজুড়ে উৎপাত শুরু করেছে। প্রথমত মিডিয়ায় তাবরেজকে নিয়ে মিথ্যা ছড়িয়ে ছিল। আর এখন সেটাকে ইস্যু করে কেউ আতঙ্কবাদকে সমর্থন করছে তো কেউ হিন্দুদের গালি গালাজ দিচ্ছে। চাইনিজ মোবাইল এপ্লিকেশন টিকটিক ও অন্যান্য সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম গুলিতে কিছু যুবক, হিন্দুদের গালি গালাজ দিয়ে ভিডিও ছড়িয়ে দিয়েছে। বেশ কিছু ভিডিও সামনে এসেছে যেখানে যুবকরা দাঙ্গা করার জন্য সাম্প্রদায়িক মন্তব্য করেছিল। এমনি এক ভিডিওতে দুজন মুসলিম যুবককে সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক মন্তব্য করতে দেখা গেছে। দুই যুবক হিন্দু সমাজকে প্রচন্ড জঘন্য ভাষায় গালি গালাজ করেছিল। মারপিট করার হুমকি, দাঙ্গা করার হুমকি, আতঙ্ক করার হুমকি দিয়েছিল দুই যুবক।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে দানিস খান নামের এক যুবক ও তার সাথী হিন্দু যুবকদের গালি গালাজ করছে। এদের ভিডিও লোকজন সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছিল। কিছুজন এদের ভিডিও দেখে এদের চিহ্নিতকরণ করেছিল। এরপর লোকজন এই কট্টরপন্থীদের ধরে ফেলে পুলিশের কাছে দিয়ে দেয়। তবে পুলিশের কাছে দেওয়ার আগে লোকজন এদের মুখ ভেঙে দেয়।


এই দুজন ঝাড়খণ্ডের চোর তাবরেজ আনসারী সমর্থনে ভিডিও বানিয়ে হিন্দু সমাজকে গালিগালাজ দিচ্ছিল। লোকজন এই দুজনকে ধরে পিটুনি দিয়েছে। লোকজন দুজন কট্টরপন্থীকে পিটিয়ে মুখের আকার পরিবর্তন করে দিয়েছে। ভিডিও করার সময় এদের মুখ ঠিক ছিল। কিন্তু ধরা পড়ার পর লোকজন এদের মুখের আকার আকৃতি পরিবর্তন করে দিয়েছে। টিকটক করে হিন্দুদের বিরুদ্ধে গালি গালাজ দেওয়া পর হিন্দুদের মধ্যে আক্রোশ তৈরি হয়েছিল। স্থানীয় লোকজন দুই দাঙ্গাবাজকে ধরে যোগ্য শাস্তি দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে।