Press "Enter" to skip to content

নিজেদের পাইলটকে ভারতীয় ভেবে মেরে আধমরা করে দিল পাকিস্থানের মূর্খ জনতা!

ভারতের ১ পাইলট মিসিং হওয়ার পর পাকিস্থান সরকার প্ৰথমদিকে যে দাবি করেছিল সেই দিকে লক্ষ করলে দেখা যাবে যে, সেই সময় ভারতীয়দের চিন্তা একটু বেড়ে গেছিল। প্রথমদিকে পাকিস্থান দাবি করেছিল যে তারা ভারতের দুটি ফাইটার জট ধ্বংস করে দিয়েছে এবং দুজন পাইলটকে গ্রেপ্তার করে নিয়েছে। পাকিস্থান দ্বারা এই খবর প্রচারিত করার পর ভারতের বুদ্ধিজীবী ও বামপন্থী বর্গ এই ইস্যুতে মোদী সরকারের আলোচনা শুরু করে দিয়েছিল। কিন্তু যখন আসল সত্য বেরিয়ে এলো তখন সেটা অবাক করে দেওয়ার মতো ছিল।

সঠিকভাবে তদন্ত হওয়ার পর বেরিয়ে আসে যে ভারতের MIG-21 পাকিস্থানের একটা f-16 কে ফাইয়ারিং করে ভেঙে দিয়েছে। একইসাথে ভারতের MIG-21 যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে ক্র্যাশ হয়। এখন বোঝাবার বিষয় হলো এই যে, পাকিস্থানে প্রথমে দাবি করেছিল যে তারা ভারতের দুটি পাইলটকে গ্রেপ্তার করেছে। এর কারণ তারা ভেবেছিল MIG-21 ও f-16 দুটোর পাইলটই ভারতের। মূর্খ পাকিস্থানী জনতা এটা কেন ভেবেছিল তার পেছনেও কারণ রয়েছে।

আসলে ভারতের MIG-21 যখন ক্র্যাশ হয়েছিল তারপর অভিনন্দন এর সাথে কি ঘটিত হয়েছিল তার ভিডিও সকলেই দেখেছেন। অভিনন্দকে দেখা মাত্র স্থানীয় পাকিস্থানীরা তাকে মারধর করতে শুরু করে দেয়। এই একই ঘটনা পাকিস্থানের f-16 এর পাইলটের সাথে হয়েছিল। f-16 ক্র্যাশ হওয়া পর পাকিস্থানের পাইলট যখন মাটিতে পড়েছিল তখন সে বুঝতে পারেনি যে এটা পাকিস্থান না ভারত।

পাকিস্থানের পাইলট পড়েছিল পাকিস্থানের প্রান্তেই। কিন্তু সে ভেবেছিল যে সে ভারত প্রান্তে পড়েছে। তাকে স্থানীয়রা যখন জিজ্ঞাসা করে যে সে পাকিস্থানি না ভারতীয় তখন পাকিস্থানের পাইলট বলেছিল যে আমি ভারতীয়। এটা শোনার পরেই পাকিস্থানের জনগণ পাকিস্থানেরই পাইলটকে মারধর করে আধমরা করে দেয়।শুধু এই নয়, পাকিস্থান ভারতীয়দের মূর্খ বানানোর জন্য আগে থেকেই তাদের পাইলটদেরকে ভারতীয় পোশাক পরিয়ে  ছিল যার জন্য পাকিস্থানের জনগণ আরো সহজে ভেবে নেয় যেটা এটা ভারতের পাইলট। একইসাথে পোশাক দেখে স্থানীয় পুলিশ কর্তৃপক্ষও ভাবে যে এটা ভারতের পাইলট এবং গ্রেপ্তারও করার পর হাসপাতালে ভর্তি করে। যারপর পাকিস্থানের মিডিয়াতেও এই খবর প্রচার করা হয় যে তারা নাকি ভারতের দুটো পাইলট গ্রেপ্তার করেছে। এই ঘটনা এখন পুরো বিশ্বের কাছে স্পষ্ট যারফলে বিশ্বজুড়ে হাসির পাত্রে পরিণত হয়েছে পাকিস্থান। এখন খবর আসছে যে পাকিস্থানের ওই পাইলট জিহাদী পাকিস্থানীদের হাতে মার খাওয়ার পর গুরুতর আহত হয়েছিল এবং এখন সে মারা গেছে।

7 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.