Press "Enter" to skip to content

বিকাশের জোয়ার উত্তরপ্রদেশে! যোগী রাজ্যে ৬৩০০০ কোটি টাকার শিল্যানাস করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

প্ৰধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ৫ দিনের আফ্রিকার সফরের পর কাল সকালে ভারতে ফিরেছেন। আফ্রিকার রাবান্দা ও ইউগান্ডা এই দুই দেশকে ভারত ৪০ ও ১০ কোটি ডলার ঋণ প্রদান করেছে। ভারত এখন অন্যদেশকে ঋণ দেওয়ার মতো অর্থনৈতিক ক্ষমতা অর্জন করেছে। আফ্রিকা থেকে ফিরেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তার একই মেজাজে বিকাশের কাজে নেমে পড়েছেন। আফ্রিকা থেকে ফিরেই প্রধানমন্ত্রী দুইদিবসের যাত্রার জন্য উত্তরপ্রদেশে রওনা দিয়েছেন। আজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী উত্তরপ্রদেশের লখনউ যাবেন সেখানে তিনি একসাথে প্রায় ৬৩ হাজার কোটি টাকার ৯৯ টি পরিকল্পনার শিল্যানাস করেছেন। এটা নিজে নিজেই একটা ঐতিহাসিক সময়ের সৃষ্টি করবে। আগে কখনো একসাথে এত বিশালকায় কার্যক্রম হয়নি।

নরেন্দ্র মোদী গ্রাম বিকাশ পরিকল্পনায় অংশ নিয়েছিলেন বলেও খবর পাওয়া যাচ্ছে। আজ দুপুরে রাজ্য সরকারের গ্রাউন্ড ব্রেকিং সেরমনির সময় প্রধানমন্ত্রী ৬৩,০০০ কোটি টাকার পরিকল্পনার শিল্যানাস করেন।প্রধানমন্ত্রী এই গ্রাউন্ড ব্রেকিং সেরমনিকে, রেকর্ড ব্রেকিং সেরমনি বলে আখ্যা দেন। প্রধানমন্ত্রী উত্তরপ্রদেশের এই সফরে বিভিন্ন জেলার আবাস যোজনায় লাভর্থীদের হাতে চাবি তুলে দিয়েছেন বলেও জানা গিয়েছে।

আজকের সেরমনিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশের বিভিন্ন শিল্পপতিদের উৎসাহিত করেন এবং দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য তাদের অবদানের সুনাম করেন। অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বিরোধীদের উপর আক্রমণ করে বলেন যদি উদেশ্য সৎ হলে শিল্পপতিদের সাথে থাকলে দাগ লাগে না। কংগ্রেসকে আক্রমণ করে মোদী বলেন, আগে কিছুলোক পর্দার পেছনে শিল্পপতিদের সাথে বৈঠকে বসতেন। প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, যদি শিল্পপতির অসৎ কাজ করে তাহলে হয় তারা দেশ ছাড়বে অথবা জেল যাবে।

শুধু এই নয় প্রধানমন্ত্রী বলেন আমার আলোচনা করার আগে মনে রাখবেন দেশে বাকি থাকা কাজের জন্য আমার খাতায় ৪ বছর আছে কিন্তু বাকিদের খাতায় ৭০ বছর রয়েছে। নরেন্দ্র মোদী এই অনুষ্ঠানে থেকে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের খুব প্রশংসা করেন এবং উত্তরপ্রদেশের দ্রুতগতিতে চলা বিকাশ কাজের জন্য যোগী সরকারকে অভিনন্দন জানান।