Press "Enter" to skip to content

অটলজির স্মরণে প্রধানমন্ত্রী মোদী দেশবাসীকে দিতে চলেছেন বড়ো উপহার, জানলে খুশি হবে প্রত্যেক ভারতীয়।

রাজনীতির মহাগুরু তথা অটল বিহারী আজ দেশবাসীর মধ্যে নেই, কিন্তু আজও উনার দ্বারা করে যাওয়া কাজ আমাদের নজর কাড়ে। অটল বিহারী বাজপেয়ীজিকে আরো একবার স্মরণ করার জন্য এবং দেশবাসীকে উপহার দেওয়ার উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী একটা বড়ো সিধান্ত নিয়েছেন। জানিয়ে দি, আগামী ২৫ শে ডিসেম্বর দেশের বিকাশপুরুষ নরেন্দ্র মোদী সবথেকে লম্বা রেল সড়ক বগিবিল পুলের উদঘাটন করতে চলেছেন। এই পুলের শিল্যানাস ১৯৯৭ সালে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী এইচ.ডি দেবেগৌড়া করেছিলেন। যার নির্মাণ ২০০২ সালে নেতৃত্বে শুরু হয়েছিল এবং ২৫ শে ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই পুলের উদঘাটন করবেন। জানিয়ে দি, এই ২৫ শে ডিসেম্বর সরকার সুশাসন দিবস।

এই বগীবিল পুল ব্রহ্মপুত্র নদীর উত্তর ও দক্ষিণ তটকে মিলিত করে। এই পুল সবথেকে লম্বা রেল সড়ক পুল যা ৪.৯৪ কিমি লম্বা। জানিয়ে দি, দেবেগৌড়ার সরকার পড়ে যাওয়ার পর এই পুল নিয়ে কেউ গুরুত্ব দেয়নি। এরপর অটল বিহারী বাজপেয়ী সরকার ক্ষমতায় এলে পুনরায় কাজ শুরু হয়। আবার ২০০৪ সালে অটল বিহারীর সরকার পড়ে গেলে বিষয়টি আবার গুরুত্বহীন হয়ে পড়ে।

শেষমেষ মোদী সরকার ক্ষমতায় এসে কার্য সম্পন্ন করে দিয়ে ৩ ডিসেম্বর ২০১৮ তে প্রথম মালগাড়ি চালিয়েছে। মোদী সরকার অরুনাচল প্রদেশকে শোধরানোর সিধান্ত নিয়ে ফেলেছে এবং অরুনাচল প্রদেশের নদীগুলির উপর রেল লিংক তৈরি করার কাজ শুরু করে দিয়েছে।

প্রায় ২১ বছর পর ব্রহ্মপুত্র নদীর উপর এই ব্রিজ নির্মাণ হওয়ায় খুশি স্থানীয় জনগণ। সুশাসন দিবসের দিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে থেকে এমন উপহার পাওয়ার আশায় আপ্লুত অসম অরুনাচলের রাজ্যবাসী।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.