Press "Enter" to skip to content

“কাশ্মীর হওয়ার দিকে এগোচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ”:ইঙ্গিত দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

পশ্চিমবঙ্গ ও পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতিকে নিয়ে বড়ো মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী । TIMES NOW নামক এক ইংরাজি মিডিয়ায় ইন্টারভিউ দেওয়া সময় পশ্চিমবঙ্গকে নিয়ে গম্ভীর চর্চা করেছেন। প্রধানমন্ত্রী ইঙ্গিত দেন যে পশ্চিমবঙ্গ ভবিষ্যতের কাশ্মীর হওয়ার দিকে এগিয়ে চলেছে। গতাকল রায়গঞ্জের এক স্থানে হিন্দুদের ভোট প্রদান করতে বাধা দেওয়া হয়েছিল একইসাথে বিজেপির এক কার্যকর্তাকে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছিল। এই ইস্যুতে বলতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদী পশ্চিমবঙ্গকে নিয়ে চিন্তা ব্যাক্ত করেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, জম্মু-কাশ্মীর যেখানে আতঙ্কবাদ ঘটনা সামান্য ব্যাপার সেখানেও পঞ্চায়েত নির্বাচন হয়েছে অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গেও নির্বাচন হয়েছে। জম্মুকাশ্মীরে একটাও হিংসার ঘটনা হয়নি অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গে ১০০ এর বেশি মানুষজনকে মেরে ফেলা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ৮০ এর দশকে কাশ্মীরে হিন্দু পন্ডিতদের সাথে এই রকম ঘটনা ঘটত যেটা পশ্চিমবঙ্গে শুরু হয়ে গেছে। জানিয়ে দি, ৮০ এর দশকে কাশ্মীরে রাজনৈতিক হিংসা ব্যাপকহারে দেখা যেত এবং হিন্দুদের উপর ছোটখাটো অত্যাচার দেখা যেত । ৯০ এর দশকে সেটা ধার্মিক হিংসায় তথা ইসলামিক জিহাদে পরিণত হয় এবং হিন্দুদের কাশ্মীর থেকে পলায়ন করতে হয়। বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গ গণতন্ত্র বলে কিচ্ছু নেই, বাংলায় রাজনৈতিক হিংসা সাধারণ ব্যাপার।

প্রধানমন্ত্রী স্পষ্ট ইঙ্গিত দেন যে পশ্চিমবঙ্গ কাশ্মীর হওয়ার দিকে পা বাড়িয়েছে। পশ্চিমবঙ্গে রাজনৈতিক কারণে ব্যাপকহারে মুসলিম তোষণ এবং অবৈধ বাংলাদেশি,রোহিঙ্গাদের প্রশ্রয় দেওয়ার কাজ চলছে। যার পরবর্তী সময়ে খুবই ভয়ংকর রূপ নিতে পারে। সম্ভবত এমনই ইঙ্গিত দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। প্রধানমন্ত্রী বলেন পশ্চিমবঙ্গে পরশুদিন বিজেপির এক কর্মীকে খুন করে গাছে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছিল। আর এমনভাবে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছিল যাতে ভয়ের পরিবেশ তৈরি হয়। কিন্তু মিডিয়া এসব নিয়ে বেশি কিছু চর্চা পর্যন্ত করেনি যা খুবই দুর্ভাগ্যের বিষয়।

8 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.