Press "Enter" to skip to content

মোদীর সাথে বলিউড অভিনেতাদের ছবি নিয়ে ব্যাপক চর্চা। অভিনেতাদের মাথায় জয় শ্রী রাম লিখে পোস্ট করলো অনেকে।

বৃহস্পতিবার দিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলিউডের অভিনেতা অভিনেত্রীদের নিয়ে একটা বৈঠক ডেকেছিলেন। বৈঠকের উদ্দেশ্য ছিল সিনেমার মাধ্যমে ভারতীয় সঙ্গস্কৃতির উপর যে প্রভাব পড়ছে তা নিয়ে আলোচনা। বলিউডের নবীনতম অভিনেতা ও অভিনেত্রীরা এই বৈঠকে পৌঁছেছিলেন। বৈঠক শেষ হওয়ার পর সকলে মিলে প্রধানমন্ত্রী মোদীর সাথে মিলে সেল্ফি নেয় যা সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ড করে যায়। দেশের জনগণের নজর এই ছবির উপর পড়তেই ছবি নিয়ে নানা প্রশ্ন ও মন্তব্য আসতে শুরু করে। বলিউডের এই গ্যাং নিয়ে কেউ পজেটিভ কমেন্ট করে তো কেউ ছবি নিয়ে ট্রোল করতে শুরু করে দেয়। বলিউডের গ্যাং এর ছবি এখন ভারতীয় সমাজে তেমন কোনো প্রভাব ফেলতে পারে না কিন্তু ছবিতে প্রধানমন্ত্রী মোদী থাকায় ছবির গুরুত্ব ১০০ গুন বেড়ে যায় যার কারণে ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে পড়ে। ছবি এতটাই ভাইরাল হয়ে পড়ে যে কিছুজন এই ছবি নিয়ে নিজের প্রোফাইল ছবিতেও দিতে শুরু করে।

সেলফিতে রণবীর সিং থেকে শুরু করে আলিয়া ভাট এর মত অভিনেতা অভিনেত্রীরা উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু কিছুজন প্রশ্ন তুলেছিল যে ছবিতে খান দের দেখা যাচ্ছে না কেন! তিন খান মোদীকে পছন্দ করেন না বলেও অনেকে বিতর্কিত মন্তব্য করেন। কিছুজন বলেন তিন খান পাকিস্থানের প্রধানমন্ত্রীর ভক্ত, মোদী ভক্ত নয়। অবশ্য কিছুজন এই মন্তব্যের বিরোধিতাও করেন।

কিছুজন বলিউডের অভিনেতাদের মধ্যে বিবেক ওবেরয়কে কেন দেখা যাচ্ছে না তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেন। তবে এতদূর অবধি ঠিক ছিল, কিন্তু ছবি নিয়ে নতুন বিতর্ক তখন শুরু হয় যখন ছবিতে বলিউডের অভিনেতাদের মাথায় জয় শ্রী রাম লিখে দেওয়া হয়। কিছুজন সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন যে বলিউডের অভিনেতার প্রধানমন্ত্রী মোদীর আশীর্বাদ নিতে এসেছেন। অভিনেতা অভিনেত্রীদের মাথায় লেখা জয় শ্রী রাম এর ছবি নিয়েও চর্চা কম হয়নি। বিশেষ করে বামপন্থী সমর্থকরা এই লেখা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র বিরোধ দেখায় এবং জবাবে ট্রোল তৈরি করতে শুরু করে।

তবে বিশেষজ্ঞদের মতে ভারতীয় সামাজিক জীবনে একটা বড় পরিবর্তন আসছে যার ধারাকে সঠিক রূপ দেওয়ার চেষ্টায় নেমেছেন নারেন্ড মোদী। বিগত বেশ কয়েক দশক থেকে বলিউড শুধুমাত্র লাভ স্টোরি ও খানদের এক ঘেয়ামী অভিনয়ের উপরে টিকে ছিল। কিন্তু এখন মানুষ এক ঘেয়ামী সিনেমাকে ছুঁড়ে ফেলে ভালো কিছুর আশা রাখছে। এই সুযোগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভারতীয় সঙ্গস্কৃতির উপর সিনেমা জগতের পড়া প্রভাব নিয়ে নবীন অভিনেতা অভিনেত্রীদের সাথে বৈঠকের ডাক দিয়েছিলেন যাতে সিনেমা জগতের মাধ্যমে সমাজকে নতুন দিশা দেখানো যায়।

Be First to Comment

Leave a Reply