Press "Enter" to skip to content

এই সেই চা-ওয়ালা যার কাজে মুগ্ধ প্রধানমন্ত্রী মোদী! দেখা করার জন্য অনেক দূর পৌঁছেছিলেন নরেন্দ্র মোদী।

প্রজাতন্ত্র দিবস এর ঠিক আগের দিন দেশ এর গুরুত্বপূর্ণ নাগরিক সন্মান পুরস্কার পদ্ম পুরস্কার এর ঘোষণা করা হয়েছে। তিন মহারথী কে দেওয়া হবে ভারতরত্ন,চার জন কে দেওয়া হবে পদ্মভিভূষণ ও চোদ্দ জন কে পদ্মভূষণ আর ৯৪ জনকে দেওয়ার ঘোষণা হয়। কেন্দ্রে নরেন্দ্র মোদী আসার পর অনেক ব্যাক্তিত্বকে সম্মানে সম্মানিত করা হয়েছে। এই বছর ও যে যে ব্যক্তির নাম আছে পুরস্কারপ্রাপ্ত একজন আর নাম আছে তাদের হয়তো অনেক এই চেনেন না কিন্তু তারা দেশ ও সমাজ এর জন্য যে অবদান রেখে গেছে তা অতুলনীয়। এনাদের মধ্যে একজন হলেন ওড়িশার বাসিন্দা যিনি 67 বছর ধরে চা বিক্রি করে আসছেন চা বিক্রি করেই তিনি সমাজসেবা করে আসেন।

এক সময় নরেন্দ্র মোদি তার কাজ নিয়ে এতটাই প্রভাবিত হয়ে পড়েন যে যখন তিনি ওড়িশার সফরে যান তখন তিনি প্রকাশ রাও এর সাথে আলাদা ভাবে দেখা করেন। মন কি বাত সাক্ষাৎকার মোদি জি প্রকাশ জি এর নাম করেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন যখন আমাকে ওড়িশার সফর যেতে হয়েছিল তখন আমার প্রকাশজির সাথে দেখা করার সুযোগ হয়েছিল।

মোদি জি বলেন আমি খুব গর্বিত এমন একজন ভারতীয় যিনি সামান্য চা বিক্রি করে 70 জন গরিব ছেলেদের পড়ার সুযোগ করে দিয়েছেন তাছাড়া তিনি এমন মানুষ দের বাসস্থান এর সুযোগ করে দিয়েছেন যাদের থাকার সুযোগ করে দিয়েছেন।এমন মানুষ এর সাথে সাক্ষাৎ এর সুযোগ পেয়ে আমি নিজেকে খুব ধন্য মনে করি।তিনি হলেন প্রতিটি ভারতীয়র আদর্শ। ডি প্রকাশ 67 বছর ধরে চা বিক্রি করেন এবং আয় এর বেশিরভাগ অংশ তিনি বাচ্চা দের পড়ানোর জন্য দান করেন।

উনার নিজের একটি স্কুল ও আছে তিনি প্রতিদিন স্কুল এ যান এবং নিজে ও বাচ্চা দের পড়ান। স্কুল থেকে বেরিয়ে তিনি হসপিটাল ও যান সেখানে তিনি অসুস্থ মানুষ দের সেবা করেন এবং হসপিটাল এ প্রতিদিন গরম জল পৌঁছাবার ব্যাবস্থা করেন। এছাড়াও দরকার পড়লে রক্তদানও করেন। উনি নিজে ইংলিশ এবং হিন্দি যে দক্ষ যার জন্য বাচ্চা দের পড়াতে তার খুব সুবিধা হয় এবং বাচ্চা রা ও তাকে খুব ভালোবাসে। এই সেই ব্যক্তি যিনি সামান্য চা বিক্রী করে অনেক মানুষ এর পাশে দাঁড়িয়েছে এবং এই বছর পদ্মশ্রী সন্মান পাওয়ার সুযোগ পেয়েছেন।

এই বছর মোদী সরকার এমন কিছু মানুষ কে পুরস্কার প্রাপ্ত করবেন তাদের হয়তো আমরা চিনি না কিন্তু তারা দেশ ও সমাজ এর জন্য এমন কিছু করেছেন যে প্রতিটি ভারতীয়র মনে প্রভাব ফেলবে। এই সমস্ত মানুষ গুলি কে সর্বোচ্চ সম্মান এ পুরস্কৃত করে মোদী সরকার তাদের কে সন্মান জানাতে চাই এবং সমাজ এর কাছে তাদের আদর্শ কে প্রভাবিত করতে চাই।

9 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.