Press "Enter" to skip to content

“নরেন্দ্র মোদীর ডেঙ্গুর মশা! মোদীকে বিষ দিয়ে মারতে হবে” – প্রাণিতি সিন্ধে, কংগ্রেস MLA

কংগ্রেস পার্টি নরেন্দ্র মোদীর উপর কতটা ঘৃণা করে সেটা সকলেই জানে। সোনিয়া গান্ধী ওই ব্যাপারটা এখনো অবধি হজম করতে পারেনি যে ভারতের একটা গরিব মায়ের ছেলে লোকতান্ত্রিকভাবে ক্ষমতা ছিনিয়ে নিয়েছে। এই কারণেই কংগ্রেসের নেতারা মোদীকে কখনো নীচ, কখনো উনার ৯০ বছরের মাতাকে গালাগালি, কখনো উনার স্বর্গীয় পিতাকে নিয়ে বাজে মন্তব্য করে থাকে। নরেন্দ্র মোদী পারিবারিকভাবে নয় বরং গণতান্ত্রিকভাবে ক্ষমতায় এসেছে যার জন্য পুরো বিশ্ব মোদীকে সম্মান করে। এখন মোদীর জনপ্ৰিয়তা এতটাই বেড়েছে যে বিশ্ব একের পর এক এওয়ার্ড ,পুরস্কার মোদীকে প্রদান করে চলেছে। আজ মোদীর জন্যেই বিশ্বে ভারতীয়দের সম্মান বেড়ে চলেছে।

আরও পড়ুন – পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির গ্র্যান্ড পরিকল্পনা ! রথযাত্রায় আসবেন নরেন্দ্র মোদী থেকে যোগী আদিত্যানাথ।

কিন্তু এই সবকিছু বিদেশী শক্তি দ্বারা পরিচালিত কংগ্রেস পার্টি সহন করতে পারছে না। মহারাষ্ট্রের কংগ্রেস বিধায়ক প্রাণিতি সিন্ধা আরো একবার মোদীর উপর আপত্তিজনক মন্তব্য করে বসেছেন। প্রাণিতি সিন্ধা একজন পারিবারিক নেতা অর্থাৎ পরিবারতন্ত্র থেকে তৈরি হওয়া নেত্রী। প্রাণিতি সিন্ধার পিতা হলেন সুশীল কুমার সিন্ধা যিনি হিন্দুদের আতঙ্কবাদী বলতেন।
প্রাণিতি সিন্ধা দেশের লোকতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্ৰধানমন্ত্রীকে ডেঙ্গুর মশা বলেছেন।

প্রাণিতি সিন্ধা বলেছেন মোদী ডেঙ্গুর মশা যে দেশে রোগ ছড়িয়ে দিচ্ছে, মোদীকে বিষ দিয়ে মারতে হবে। এই ডেঙ্গুর মশা মোদীকে মরতেই হবে বলে মন্তব্য করেন এই কংগ্রেস নেত্রী। এই কংগ্রেস নেত্রীর বাবা সুশীল কুমার সিন্ধে একসময় ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পদেও ছিলেন। সেই নেতার কন্যা এখন মোদীকে বিষ দিয়ে মারার কথা বলতে শুরু করেছে।

সুশীল কুমার সিন্ধে

জানিয়ে রাখি, প্রাণিতি সিন্ধে মহারাষ্ট্র এর কংগ্রেস নেত্রী, এই মহারাষ্ট্রতেই মোদীকে মারার প্ল্যান কষে রাখা নকশালীরা গ্রেপ্তার হয়েছে যারা চিঠিতে কংগ্রেসকে নিজেদের বন্ধু বলেও দাবি করেছিল। নকশালীদের প্রিয় কংগ্রেস এখন গালিগালাজ ছাড়া বিষ দিয়ে মোদীকে হত্যার কথাও খোলাখুলি বলতে শুরু করে দিয়েছে।