Press "Enter" to skip to content

ভারতের রাষ্ট্রপতি উনার নাতি নাতনির সাথে দোকান যান এবং যখন বিল মেটানোর সময় আসে তখন কি করলেন দেখুন।

দেশের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ কিছুদিন হিমালচল প্রদেশের রাজধানী সিমলা সফরে যান এবং সেখানের বিখ্যাত মাল রোডে তিনি এমনভাবে ঘোরাফেরা করেন যে উনার আচরণ সকলকে আকর্ষিত করেছে। আসলে রাষ্ট্রপতি মহাশয় যে মাল রোডে একজন সাধারণ মানুষের মতো ঘোরাফেরা করেন এটাই নয় সাথে তিনি বুকস্টল থেকে কিছু বইও কেনেন। এরপর উনি একটা ক্যাফেটেরিয়াতে যান এবং সেখানে উনার পরিবারের সাথে কফি পানের আনন্দ উপভোগ করেন। সবথেকে উল্লেখ্য বিষয় এই যে রাষ্ট্রপতি মহাশয় বুকস্টল থেকে ক্যাফেটেরিয়া পর্যন্ত সমস্ত খরচটাই নিজের ক্রেডিট কার্ড দিয়ে করেন। রাষ্ট্রপতির এইরকম হটাৎ আসা এবং বিল পেমেন্ট দেখে খুবই খুশি হন এবং রেস্টুরেন্টের প্রবন্ধক জানান যে অথিতি হিসেবে রাষ্ট্রপতির আগমণ সত্যি অনেক বড় সম্মানের ব্যাপার ।

দেশের সর্বোচ্চ নাগরিক হওয়ার জন্য রাষ্ট্রপতি সমস্ত রকমের সুযোগ সুবিধা পান এবং ভাতা পান। কিন্তু নিজের খরচের টাকা নিজের ক্রেডিট কার্ড দিয়ে রাষ্ট্রপতি মহাশয় দেশের উদ্যেশে একটা স্পষ্ট এবং সঠিক পজিটিভ চিন্তাধারার বার্তা প্রদান করেন।

উনি নিজের বিল নিজের পেমেন্ট করে বোঝান যে রাষ্ট্রপতি একজন দেশের সাধারণ নাগরিকের মতোই হন। আধিকারিকরা জানান যে পিতারহফ থেকে ফেরার পথে রাষ্ট্রপতি মহাশয় রেস্টুরেন্ট যান এবং সেখানে উনি উনার পত্নীর সাথে চা ও স্ন্যাকস এর আনন্দ উপভোগ করেন।

রাষ্ট্রপতিকে দেখার জন্য বিশাল সংখ্যায় মানুষজন রেস্টুরেন্টের কাছে এসে জমা হন। রাষ্ট্রপতি মহাশয় উপস্থিত জনগণের সাথে দেখা করেন এবং বিল মেটান। রাষ্ট্রপতি মহাশয়ের গাড়ির কাফিলা রিং রোডে দাঁড়িয়ে ছিল।

রাষ্ট্রপতি মহাশয়ের গাড়ির কাফিলার জন্য সাধারণ মানুষের অসুবিধা হচ্ছে এটা উপলদ্ধি করার সাথে সাথে উনি গাড়ির সংখ্যা ১৭ থেকে কমিয়ে ৪ করার নির্দেশ দেন। পরে উনি মালরোড পুরো ঘুরে দেখেন এবং মিনেরভা বুকস্টল থেকে বই কেনেন।