Press "Enter" to skip to content

বিদেশী মিডিয়ার কাছে অপমানিত হলেন প্রিয়াঙ্কা ভাদ্রা! গান্ধী পরিবারের পোল খুলে দিল এই সংবাদ মাধ্যম।

ভারতের মিডিয়া সম্পুর্নরূপে দুর্নীতিগ্রস্থ এনিয়ে কোনো সন্দেহ থাকা উচিত নয়। ভারতের মিডিয়া নিজেদের আত্মসম্মানকে টাকার সামনে ঝুঁকিয়ে দিয়েছে যার জন্য এদের দ্বারা পরিবেশিত বেশিরভাগ খবর পেইড প্রোমোশন করে। বর্তমান দিনে দ্বারা যারা নামিদামি খবরের কাজগ পড়ে নিরপেক্ষ ও সত্য খবরের সন্ধান করে তারা রাহুল গান্ধীর থেকেও বড়ো পাপ্পু। এটা অস্মিক অভিজ্ঞতা নয়, বরং এটাই বাস্তবিক সত্য। কলকাতায় বসে ছাপানো বাংলার খবরের কাগজ হোক বা দিল্লীর স্টুডিওতে বসে থাকা মিডিয়া হোক, বেশিরভাগ মিডিয়া টাকা নিয়ে দালালি করার জন্য নেমে পড়েছে। কলমের সৈনিক নামে পরিচিত ভারতের সাংবাদিকরা এখন বিক্রীত দালাল মিডিয়াতে পরিণত হয়েছে।

সম্প্রতি দেশের মিডিয়া প্রিয়াঙ্কা ভাদ্রাকে নিয়ে উৎপাত শুরু করেছে। মিডিয়া প্রিয়াঙ্কাকে এমনভাবে দেখাচ্ছে যেন রাজনীতিতে তার কতবড়ই না প্রভাব। দালাল মিডিয়া প্রিয়াঙ্কাকে মোদীর স্তরের নেতা বলতেও লজ্জা বোধ করছে না। যে মোদী আজ বিশ্বনেতা হিসেবে পরিচিত তার সাথে প্রিয়াঙ্কা ভাদ্রার তুলনা করছে ভারতের দালাল মিডিয়া। প্রিয়াঙ্কা ভাদ্রা ২০১৭ সালে উত্তরপ্রদেশে বিধানসভা নির্বাচনের জন্য প্রচার করেছিল। কিন্তু বিধানসভা নির্বাচনে মাত্র ২ টি আসন জিততে পেরেছিল কংগ্রেস। অর্থাৎ রাজনীতিতে প্রিয়াঙ্কা ভাদ্রার কোনো প্রভাব নেই বললেই চলে।

কিন্তু ভারতের দালাল মিডিয়া টাকা নিয়ে জালি খবর পরিবেশন করে। এই কারণে ভারতের মিডিয়া প্রিয়াঙ্কা ভাদ্রার দালালি করতে নেমে পড়েছে। তবে ভারতের মিডিয়া প্রিয়াঙ্কাকে নিয়ে সত্য বলার সাহস না রাখলেও বিদেশের মিডিয়া গান্ধী পরিবার ও প্রিয়াঙ্কাকে নিয়ে সত্য বলার সাহস রাখে। বিশ্বের সবথেকে সত্য দেশের তালিকায় পড়ে নিউজিল্যান্ড। এই দেশের মিডিয়াও সত্য ও কড়া শব্দ বলার জন্য প্রসিদ্ধ।

নিউজিল্যান্ডের এক সংবাদমাধ্যম লিখেছে, ভারতে রাজীব গান্ধীর মেয়ে পরিবারের কোম্পানি জয়েন করে নিয়েছে। নিউজিল্যান্ডের সংবাদমাধ্যম বলেছে যে ভারতের কংগ্রেস পার্টি একটা পারিবারিক পার্টি। এই পরিবার ভারতের লোকতন্ত্রের মধ্যে রাজনীতি করে। কিন্তু এই পার্টির মধ্যে লোকতন্ত্র নেই, এটা একটা পারিবারিক কোম্পানি। রাজীব গান্ধীর মেয়ে প্রিয়াঙ্কা পরিবারের কোম্পানিতে যোগদান করেছেন।

এমনটাই লিখেছে নিউজিল্যান্ডের সংবাদ মাধ্যম, এটাই সত্যিকারের সাংবাদিকতা। যা ভারতের দালাল মিডিয়া কখনো করতে পারে না। নিউজিল্যান্ডের সংবাদ মাধ্যম সত্য প্রকাশ করে ভারতের দালাল মিডিয়ার চোখ খুলে দেওয়ার মতো কাজ করেছে।

8 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.