Press "Enter" to skip to content

এবার রাহুল গান্ধীর ব্যাপারে এমন তথ্য ফাঁস হলো যা জানলে আপনিও চমকে উঠবেন।

ের সর্ব সভাপতি রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে উঠল এক বিশ্ময়কর অভিযোগ। তবে এই অভিযোগ যেকোনো সাধারণ রাজনৈতিক ব্যাক্তি করেনি, এই অভিযোগ করেছেন বিজেপি সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্ী । তিনি রাহুল গান্ধির নামে অভিযোগ এনে বলেন যে রাহুল গান্ধি নিয়মিত মাদক সেবন করেন সে মাদক কোনো নিম্ন মানের মাদক নয়। তিনি সেবন করেন অত্যন্ত নেশাগ্রস্ত মাদক কোকেন। তার দাবি ভারতবর্ষের প্রাপ্তন প্রধানমন্ত্রী পুত্রের রয়েছে কোকেনের নেশা।

এই ঘটনার সুত্রপাত হয় ের মাদক আসক্তি কে কেন্দ্র করে পাঞ্জাব প্রশাসন একটি নির্দেশিকা জারি করেন। সেখানে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী আমরিন্দর সিং নির্দেশিকা জারি করে বলেন যে এবার থেকে ডোপ টেস্ট দিয়ে নিজেকে ডোপ মুক্ত প্রমান করতে হবে করতে গেলে। তিনি এই নিয়ম জারি রাখতে চান পদউন্নতির ক্ষেত্রেও। মঙ্গলবার একটি নির্দেশিকা জারি করে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী আমরিন্দর সিং বলেন যে সহ সকল প্রকার সরকারি চাকরির ক্ষেত্রে এই ডোপ টেস্ট দিতে হবে। যদি ডোপ টেস্টে পাশ না করে তাহলে তার চলে যেতে পারে।
পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীর এই নির্দেশিকা জারির পরে এবার মুখ খুললেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হারসিমরাত কৌর বাদল। কেন্দ্রীয় সরকারের খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ মন্ত্রী হারসিমরাত কৌর বাদল যুক্তি দেখিয়ে বলেন যে যদি সকল পাঞ্জাববাসি মাদকাসক্ত হয় তাহলে সেই রাজ্যের সব মন্ত্রীদেরও ডোপং টেস্ট দিতে হবে। তাই তিনি রাজনৈতিক নেতাদেরও ডোপিং টেস্ট হবার দাবি জানান।

এই বিষয়ে দুই পাঞ্জাববাসির তর্কাতর্কির মাঝে এই বিতর্কে সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী নিজেকে সামিল করেছেন। এই বিজেপি সাংসদ বললেন যে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হারসিমরাত কৌর বাদল মনে হয় কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর কথা ভাবছেন। কারন তিনি নিয়মিত কোকেন সেবন করেন তাই রাজনৈতিক নেতাদের ডোপিং টেস্ট হলে তিনি পাস করতে পারবেন না।
#অগ্নিপুত্র