Press "Enter" to skip to content

এবার রাহুল গান্ধীর কাছে ‘ন্যায়” চেয়ে বসলো আমেঠির জনতা

কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধী লোকসভা নির্বাচনে হারার পর বুধবার প্রথম বার আমেঠি যাচ্ছেন। রাহুল গান্ধী আমেঠির গৌরিগঞ্জের একটি ইন্সটিটিউটে কর্মীদের সাথে বসে হারের সমীক্ষা করবেন। কিন্তু ওনার আমেঠি সফরের আগেই চরম অস্বস্তিতে পড়তে হচ্ছে ওনাকে এবং ওনার দলকে।

রাহুল গান্ধীর আমেঠি যাওয়ার আগে সঞ্জর গান্ধী হাসপাতালের বিরুদ্ধে যায়গায় যায়গায় পোস্টার লাগানো হয়।পোস্টার লাগিয়ে রাহুল গান্ধীর কাছে জবাব চাওয়া হয়। পোস্টারে লেখা হয় যে, ‘ন্যায় দাও, ন্যায় দাও। আমার পরিবারকে ন্যায় দাও, দোষীদের সাজা দাও। এই হাসপাতালে জীবন বাঁচানো হয় না, মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেওয়া হয়।” মৃতের পরিবার। আপনাদের জানিয়ে রাখি, রাহুল গান্ধী সঞ্জয় গান্ধী হাসপাতালের ট্রাস্টি।

প্রসঙ্গত, লোকসভা নির্বাচনে হারার পর রাহুল গান্ধী প্রথমবার আমেঠি সফরে যাচ্ছেন। তিনি গৌরিগঞ্জের নির্মলা ইন্সটিটিউট অফ উইমেন এডুকেশন এন্ড টেকনলজি তে দুপুর ১২ টা থেকে তিনটে পর্যন্ত কর্মীদের সাথে বৈঠক করবেন। ওই বৈঠকে রাহুল গান্ধী লোকসভা নির্বাচনে হারের সমিক্ষা করবেন। রাহুল গান্ধীর এই সমিক্ষা বৈঠকে জেলা থেকে শুরু করে গ্রামীণ স্তরের পদাধিকারদের ডাকা হয়েছে।

রাহুল গান্ধীর আমেঠির সফরের একদিন আগে এসপিজি এর অফিসারেরা জেলার হেড অফিসে গিয়ে অনুষ্ঠান স্থলের নিরীক্ষণ করেন। সেই সময় এসপিজি এর অফিসারেরা দলের নেতা এবং প্রশাসনিক অফিসারদের সুরক্ষা সম্বন্ধিত জরুরি ব্যাপার গুলো সমন্ধ্যে অবগত করান।

জেলা এবং পুলিশ প্রশাসনের তরফ থেকে রাহুল গান্ধীর সুরক্ষা নিয়ে সম্পূর্ণ প্রস্তুতি সেরে ফেলা হয়েছে। অনুষ্ঠান স্থলে প্রশাসনিক অফিসার এবং পুলিশকে ডিউটিতে রাখা হয়েছে। জেলা সভাপতি জগেন্দ্র মিশ্র বলেন, বৈঠক নিয়ে ওনার তরফ থেকে সমস্ত প্রস্তুতি সেরে ফেলা হয়েছে।