Press "Enter" to skip to content

মাত্র ২৪ ঘন্টার মধ্যে ক্ষমা চাইলেন রাহুল গান্ধী! কিন্তু কারন জানলে আপনিও হাসবেন

ভারতে রাজনীতি করার সাথে সাথে খুব দারুনভাবে মনোরঞ্জন করেন এমন একমাত্র নেতা হলেন নেতা । নিজের বিতর্কিত ও ভুলভ্রান্তি মূলক মন্তব্যের জন্য বেশিরভাগ সময় মিডিয়ার নজরে থাকেন এই ৪৮ বছরের যুব নেতা। রাহুল গান্ধী এমন নেতা যিনি প্রমান ছাড়াই বহুবার অনেকের উপর অভিযোগ নিয়ে আসেন যার জন্য দেশের জনগণ উনার মন্তব্যগুলিকে গুরুত্বহীন মনে করে এড়িয়ে চলে। সোমবার দিন আরো একবার রাহুল গান্ধী এমন কাজ করেছেন। রাহুল গান্ধী সোমবার দিন মধ্যেপ্রদেশের রালি থেকে মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ চৌহানের ছেলের উপর পানামা দুর্নীতি জড়িত থাকার অভিযোগ করেছেন।

বিনা প্রমাণের ভিত্তিতে এই অভিযোগ করেছিলেন রাহুল গান্ধী। এরপর মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ চৌহান, রাহুল গব্ধির মানহানি মামলা করার সিধান্ত নেন। মধ্যপ্রদেশের ি সমর্থকেরা ৪৮ ঘণ্টা সময় দেন রাহুল গান্ধীকে তার অভিযোগ প্রমান করার জন্য নতুন অভিযোগ ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য। মধ্যেপ্রদেশের বিজেপি সমর্থকেরা সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ফিল্ডে সমস্থ জায়গায় তার অভিযোগ প্রমান করার দাবি তুলে।

এরপর মাত্র ২৪ ঘন্টার মধ্যে রাহুল গান্ধী এই বিষয়ে সাফাই দেন এবং নিজের ভুল স্বীকার করেন। রাহুল গান্ধী মধ্যেপ্রদেশেই ের কাছে ইনফর্মাল কথাবার্তা করার সময় জানান যে তিনি কনফিউশন হয়ে এমন মন্তব্য করে ফেলেছেন। রাহুল গান্ধী বলেন পানামা প্যাপার মামলায় উনি অন্য একজনকে দোষারোপ করতে গিয়ে ের পুত্র এই নাম বলে ফেলেছেন।

তবে এই ঘটনা এই প্রথম নয় এর আগেও বহুবার রাহুল গান্ধী মিথ্যা অভিযোগ এনে অনেক নেতাদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। রাহুল গান্ধী অনেকবার উপর মিথ্যা অভিযোগ আনেন। যদিও নরেন্দ্র মোদী কখনোই রাহুল গান্ধীকে ততটা গুরুত্ব দেন না।