রাহুল গান্ধী কংগ্রেসে এমন কট্টর হিন্দুবিরোধী ব্যাক্তিকে সামিল করলেন যার কীর্তি শুনলে চোখ কপালে উঠবে।

যে ব্যক্তির ছবি উপরে দেখছেন উনাকে হয়তো আপনার চিনতে নাও পারেন, কারণ দেশের বেশিরভাগ মিডিয়া বামপন্থীদের হাতে রয়েছে। এই কারণে নকশালপন্থী বা তার সাথে জুড়ে থাকা সমষ্ঠকিছুকে মিডিয়া এড়িয়ে যায়। এই ব্যাক্তির নাম গুমমদি ভিটটাল রাও। এই ব্যাক্তি অন্দ্রপ্রদেশ ও তেলেঙ্গানার একজন সক্রিয় নকশাল গায়ক। এই ব্যাক্তি একা বহুশত যুবককে নকশালী বানিয়েছে, দেশে আতঙ্ক ছড়িয়েছে, বহু পরিবারকে নষ্ট বকরি দিয়েছে, এমন অভিযোগ এই ব্যাক্তির উপর লাগাতার চলে আসছে। এই ব্যক্তির এমন ব্যাবহারের জন্য অনেক এনাকে দেশের বিশ্বাসঘাতক বলেও দাবি করেন। গুমমদি ভিটটাল রাওকে এখন রাহুল গান্ধী কংগ্রেস পার্টির বড়ো নেতা বানিয়ে দিয়েছে। গুমমদি ভিটটাল রাও খ্রিষ্টান মিশনারির বেতনভোগী এজেন্ট যিনি অন্ধ্র ও তেলেঙ্গানাতে হিন্দুদের ধর্মান্তরণ এও কাজ করেন।

বহু বছর থেকে এই ব্যাক্তি গান গাওয়ার মাধ্যমে হিন্দু ধর্মের বিরুদ্ধে মানুষকে উৎসাহিত করেন। মুলরূপে এই ব্যাক্তি একজন গায়ক যিনি নাকশালীদের সমর্থনে গান গায়। নিজের গানে ভারতকে গালাগালি করা, দেশবিরোধী মন্তব্য করা এই ব্যাক্তির প্রধান কাজ। রাহুল গান্ধী যে গুমমদি ভিটটাল রাওকে নেতা বানিয়ে দিয়েছেন তিনি নকশালী মারা গেলেই নতুন গানের মাধ্যমে মানুষকে নকশাল যোগ দেওয়ার জন্য উস্কানি দেন।

অন্ধ্র বেল্টে বহু বাড়ির যুবককে নকশালপন্থীর দিকে আকর্ষণ করে তাদের জীবন ও পরিবার নষ্ট করে দিয়েছে গুমমদি ভিটটাল রাও। এরপর কোনো নকশালী মারা গেলেই তার শবদেহের কাছে গিয়ে গান গেয়ে আরো যুবকদের নকশালীতে যোগ দেওয়ার জন্য উস্কানি দিয়েছে। গুমমদি ভিটটাল রাও পুরো জীবন হিন্দু ধর্মের বিরুদ্ধে, ভারতের বিরুদ্ধে কাজ করেছে।

গুমমদি ভিটটাল রাও একজন চরমপন্থী নকশালী কিন্তু কাল থেকে ইনি একজন কংগ্রেসের নেতাও। রাহুল গান্ধী এই ব্যাক্তিকে কংগ্রেসে সামিল করে ভারতবিরোধী কার্যের জন্য পুরস্কিত করে দিলেন। গুমমদি ভিটটাল রাও এর কংগ্রেসে যোগ দেওয়া ঠিক সেই রক্ষণ ব্যাপার যেন হাফিজ সাহিদের কংগ্রেসে যোগ দিয়েছে।

Open

Close