Press "Enter" to skip to content

কেন্দ্রকে আক্রমণ করতে গিয়ে দেশের অপমান করে বসলেন রাহুল গান্ধী।

আজ সাংসদে মোদী সরকারেট উপর আক্রমন করার জন্য রাহুল গান্ধীর দল সহ বিরোধীরা অবিশ্বাস প্রস্তাব এনেছিল। কিন্তু মোদী সরকারের উপর আক্রমণ করতে গিয়ে আজ রাহুল গান্ধী দেশকেই অপমান করে বসলেন। আসলে আজ রাহুল গান্ধী সংসদে বলেন যে “মোদী সরকার রাফেল চুক্তির উপর দাম প্রকাশ করছেন না। সরকার দাবি করছে যে ফ্রান্সের সাথে ভারতের সিক্রেট প্যাক্ট রয়েছে। কিন্তু ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি জিখন ভারতে এসেছিলেন তখন তিনি আমাকে বলেছিলেন যে এই নিয়ে কোনো সিক্রেট প্যাক্ট নেই।”

এখন রাহুল গান্ধীর এই বক্তব্যের পর বিষয়টি আন্তর্জাতিক হয়ে যায়। ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি দপ্তর রাহুল গান্ধীর বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া দিতে নড়ে চড়ে বসে। ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি ইমানুয়েলের দপ্তর থেকে রাহুল গান্ধীর ভাষণের উপর প্রতিক্রিয়া দিয়ে জানিয়েছে যে রাহুল গান্ধী মিথ্যা এবং ভিত্তিহীন কথা বলেছেন। ভারতের সাথে ফ্রান্সের সিক্রেট প্যাক্ট ২০০৮ থেকেই রয়েছে যখন ভারতে কংগ্রেস শাসন ছিল। ভারতে উপস্থিত ফ্রান্সের রাজদূত সাংসদ হওয়া রাহুল গান্ধীর বক্তৃতাতে অস্বস্তি প্রকাশ করেছেন এবং বিষয়টিকে দুর্ভাগ্যজনক বলেছেন।২০০৮ সালে ততকালীন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী এ কে এন্টোনির সাথে ওই চুক্তি হয়েছিল যখন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন মনমোহন সিংহ। আপনাদের জানিয়ে রাখি ভারতের বর্তমান প্রতিরক্ষা মন্ত্রী নির্মলাজিও রাহুল গান্ধীর কথায় আপত্তি দেখিয়ে সমস্ত কিছু প্রমাণ সংসদে দেখিয়েছিলেন। কিন্তু দুঃখের বিষয় এই যে রাহুল গান্ধী মোদী সরকারকে আক্রমণ করতে গিয়ে দেশের অপমান করে বসলেন।সাংসদের মতো জায়গায় ভিত্তিহীন ও মিথ্যা অভিযোগে যে দেশের সন্মানহানি হতে পারে তা একবার না ভেবেই ভাষণ দিয়েছিলেন রাহুল গান্ধী।