Press "Enter" to skip to content

ঋণের দায়ে আত্মঘাতী কৃষক, মরার সময় কংগ্রেস সরকারকে করে গেলো দায়ি, কংগ্রেস জানালো, কোন ঋণই ছিলনা ওনার!

রাজস্থানের শ্রী গঙ্গানগর জেলায় ঋণের দায়ে এক কৃষক আত্মহত্যা করার পর দেশ জুড়ে নিন্দার ঝড় উঠলো। রাজস্থানের পুলিশ জানায়, রবিবার শ্রী গঙ্গানগর জেলার রায় সিংহ নগর এলাকায় ঋণের দায়ে এক কৃষক আত্মহত্যা করেন। উনি মরার আগে ফেসবুকে একটি ভিডিও আর দুই পাতার সুইসাইড নোটের ছবি শেয়ার করে যান।

শোনা যাচ্ছে ওই কৃষক চাষ করার জন্য প্রায় আড়াই লক্ষ টাকা ঋণ নিয়েছিলেন। সেই ঋণ শোধ করা তাঁর ক্ষেত্রে চরম সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছিল। মৃত কৃষক সোহন লাল নিজের সুইসাইড নোট আর ভিডিওর মাধ্যমে রাজস্থানের কংগ্রেস সরকার আর রাহুল গান্ধীর দেওয়া প্রতিশ্রুতি ভুয়ো বলে কংগ্রেসকে তাঁর মৃত্যুর জন্য দায়ি করেছেন।

সোহন লালের অনুসারে, বিধানসভা নির্বাচনের সময় কংগ্রেস রাজ্যের কৃষকদের ঋণ মুকুবের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। কিন্তু এতদিন পরেও তাঁদের ঋণ মুকুব হয়নি। উলটে ঋণ মুকুব নিয়ে রাজ্যে কংগ্রেসের দুর্নীতি সামনে এসেছে। ওই ভিডিওতে উনি রাজস্থানের গেহলট সরকারকে কৃষকদের সমস্যা সমাধান করার জন্য সঠিক পদক্ষেপ নেওয়ার আবেদন করে গেছেন। এর সাথে উনি এটাও বলে গেছেন যে, যতদিন না কৃষকদের সমস্যার সমাধান হবে, ততদিন ওনার দেহর সৎকার যেন না হয়।

রাজ্যের উপ মুখ্যমন্ত্রী সচিন পাইলট সোহন লালের মৃত্যুতে দুঃখ প্রকাশ করেছেন। উনি এই ঘটনা নিয়ে তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন। পাইলট বলেন, আমি যেই তথ্য পেয়েছি সেটা অনুযায়ী, সোহন লালের উপর কোন ঋণ ছিল না। রাজস্থান সরকার কৃষকদের কল্যাণ আর তাঁদের ভবিষ্যৎ নিয়ে বদ্ধ পরিকর।

রায়সিংহ নগরের পুলিশ নির্দেশক জানান, সোহন লালের প্রতিবেশী পুলিশকে সুইসাইড নোট দিয়েছিল। সেটার তদন্ত চলছে।